প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফের আলোচনায় ভোট পেছানো

বাংলাদেশ প্রতিদিন : আবারও আলোচনা হচ্ছে ভোটের তারিখ পেছানো নিয়ে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবি এক মাস পেছানোর। প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বলেছেন, আজ ইসি তার অবস্থান ব্যাখ্যা করবে।

ভোটের তারিখ পেছানো বিষয়ে দলের অবস্থান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, তারিখ পেছালে আপত্তি নেই। সেই সঙ্গে অন্য রাজনৈতিক দলগুলো তারিখ পেছানোর পক্ষে। এ নিয়ে আজ নির্বাচন কমিশনেও বৈঠক হয়েছে। সিইসির কক্ষেই অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে নির্বাচন পেছানোর বিষয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে। তবে সব নির্বাচন কমিশনার বৈঠকে উপস্থিত না থাকায় কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আজ নির্বাচন কমিশন নির্বাচনের পুনঃ তফসিল নিয়ে বৈঠকে বসবে।

সংসদ নির্বাচনের পুনঃ তফসিল নিয়ে নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম গতকাল বলেন, ‘আমরা রবিবার কমিশনে বসেছিলাম। কিন্তু সব নির্বাচন কমিশনার ছিলেন না। তাই আগামীকাল (আজ সোমবার) আমরা আবারও বসব। এ ক্ষেত্রে সংসদ নির্বাচনের পুনঃ তফসিল করা হবে কিনা তা নিয়ে আলোচনা হবে।’ ইসির কর্মকর্তারা বলছেন, ভোটের তারিখ নয়, মনোনয়ন দাখিল ও প্রত্যাহারের তারিখ পেছানো হতে পারে। এ জন্য ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী প্রচারণার সময় ২১ দিন দিলেও কমিশনের হাতে দুই-তিন দিন সময় রয়েছে। তবে সব দল চাইলে ভোটের তারিখও পেছানো যেতে পারে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ আগামী ২৩ ডিসেম্বর রবিবার। তফসিল অনুযায়ী, রিটার্নিং অফিসারের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৯ নভেম্বর সোমবার। মনোনয়নপত্র বাছাইয়ের তারিখ ২২ নভেম্বর বৃহস্পতিবার। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার।

‘নির্বাচন পেছানো হবে কিনা সিদ্ধান্ত আজ’ : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবিতে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পেছানো হবে কিনা সে বিষয়ে আজ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। গতকাল রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবন থেকে বের হওয়ার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা। ঐক্যফ্রন্টের নির্বাচন এক মাস পেছানোর দাবির বিষয়ে জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘এ বিষয়ে কমিশনারদের সঙ্গে কথা বলে জানাতে পারব। আমরা খবরটা পেয়েছি। আগামীকাল (আজ) কমিশনারদের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেব।’

আওয়ামী লীগের আপত্তি নেই : রাজনৈতিক জোটগুলোর দাবির পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন (ইসি) ভোটের তারিখ পিছিয়ে দিলে তাতে আওয়ামী লীগ আপত্তি করবে না বলে জানিয়েছেন ক্ষমতাসীন দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। গতকাল রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলীয় মনোনয়ন ফরম বিক্রির সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচনের শিডিউল পেছাবে কি পেছাবে না, তা সম্পূর্ণ নির্বাচন কমিশনের এখতিয়ার। যদি নির্বাচন কমিশন শিডিউল পেছায়, তবে আমাদের কোনো আপত্তি থাকবে না।’

শরিকরাও নৌকা প্রতীক নেবে : আওয়ামী লীগ জোটবদ্ধভাবে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করতে চায় বলে নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছে। তবে কোন কোন দল নৌকা প্রতীক নিয়ে অংশ নেবে এবং তার মধ্যে কতটি নিবন্ধিত, সে বিষয়ে কিছু সাংবাদিকদের জানাননি আওয়ামী লীগ নেতারা। গতকাল বিকালে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল শরিকদের প্রতীক বরাদ্দ দিতে দলের চিঠি নিয়ে নির্বাচন কমিশনে যান।

পেছানোর দাবি ঐক্যফ্রন্টের : জোটবদ্ধভাবে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের সিদ্ধান্ত নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০-দলীয় জোট। বিএনপি তাদের জোটের সাত শরিক দলকে ধানের শীষ প্রতীক ব্যবহারের অনুমতি দিতে নির্বাচন কমিশনে চিঠি দিয়েছে। সেই সঙ্গে নির্বাচন এক মাস পেছানোর জন্য ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র হিসেবে বিএনপি মহাসচিবের আরেকটি চিঠি কমিশনকে দেওয়া হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা বিজন কান্তি সরকার ও সাবেক আমলা আবদুল বারী গতকাল বিকালে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর স্বাক্ষরিত দুটি চিঠি নির্বাচন কমিশন সচিবের কাছে পৌঁছে দেন।

‘উদীয়মান সূর্য’ প্রতীক : গতকাল সিইসির কাছে পাঠানো এক চিঠিতে গণফোরাম জানিয়েছে, একাদশ সংসদ নির্বাচনে যদি গণফোরাম অংশগ্রহণ করে, তাহলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিক দল হিসেবে তারা দলীয় প্রতীক ‘উদীয়মান সূর্য’ নিয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে।

নৌকা চায় জাসদ ও তরিকত : সরকারের শরিক জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ও বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশন (বিটিএফ) একাদশ সংসদ নির্বাচনেও আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকে ভোট করতে চায়। জাসদের সহ-দফতর সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন এ বিষয়ে তাদের সভাপতি হাসানুল হক ইনুর চিঠি প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে পৌঁছে দেন।

পেছানোর দাবি যুক্তফ্রন্টের : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পাশাপাশি এবার যুক্তফ্রন্টও একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন পেছানোর দাবি জানিয়েছে। যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন এক সপ্তাহ পেছানোর দাবি জানিয়ে চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশনে। গতকাল ইসির কাছে এক চিঠিতে এ দাবি জানায় যুক্তফ্রন্ট।

দলীয় বা ঐক্যফ্রন্টের প্রতীকে লড়বেন কাদের সিদ্দিকী : গতকাল সিইসির কাছে পাঠানো এক চিঠিতে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ জানিয়েছে, আসন্ন একাদশ সংসদ নির্বাচনে তারা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিক দল হিসেবে অংশগ্রহণ করবে। দলীয় প্রতীক ‘গামছা’ বা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট মনোনীত প্রতীক ব্যবহার করা হবে।

‘ধানের শীষ’ ও ‘ছাতা’ প্রতীক চায় এলডিপি : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ধানের শীষ ও ছাতা—এই দুই প্রতীকে নির্বাচন করতে চায় লিবারেল ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এলডিপি)। গতকাল নির্বাচন কমিশনের কাছে এই চিঠি জমা দেন এলডিপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম-মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম।

ইসির অনুমতি ছাড়া কর্মকর্তাদের বদলি নয় : নির্বাচন কমিশনের (ইসি) অনুমতি ছাড়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মকর্তাদের বদলি বা ছুটি না দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল এ বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে ইসি।

লাঙ্গল প্রতীকে নির্বাচন করবে জাতীয় পার্টি : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জোটগতভাবে গেলেও লাঙ্গল প্রতীক নিয়ে লড়বে জাতীয় পার্টি। জোটের মধ্যে থেকেও নিজ প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়টি প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কেএম নূরুল হুদাকে জানিয়েছে দলটি।

জেএসডি ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচন করবে : জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শরিক দল হিসেবে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) যৌথ মনোনীত প্রার্থীরা বিএনপির প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে একাদশ সংসদ নির্বাচনে অংশ নেবে বলে গতকাল এক চিঠিতে নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ