প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তদন্ত করলে দুদকেও দুর্নীতি বের হবে

বাংলাদেশ জার্নাল: জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেছেন, নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করলে দুর্নীতি দমন কমিশনেও (দুদক) নানা ধরনের দুর্নীতি বের হবে। উন্নয়ন কাঙ্ক্ষিতভাবে হলে দুর্নীতি কমে যায়। তিনি বলেন, শুধু কর ও শুল্ক বিভাগকে লক্ষ্য করে কোনো কিছু করা হলে এবং এসব বিভাগে দুদকের অফিস করতে চাইলে সেটা হতে দেওয়া হবে না। আয়কর অধ্যাদেশ ও শুল্ক আইনে নেই এমন কিছু করা যাবে না।

রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে এনবিআরের চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এসব কথা বলেন। কর মেলা ও করদাতাদের সম্মাননা দেওয়া উপলক্ষে সেগুনবাগিচার এনবিআর ভবনে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দুদকের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, কর বিভাগে ১৩ ধরনের দুর্নীতি হয়। এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এ কথা বলেন। আয়কর বিভাগের অভ্যন্তরীণ দুর্নীতির ১৩ উৎস এবং এসব ‍দুর্নীতি প্রতিরোধে ২৩টি সুপারিশ সংবলিত একটি প্রতিবেদন গত বৃহস্পতিবার মন্ত্রিপরিষদ সচিব বরাবর জমা দেয় দুদক।

সংবাদ সম্মেলনে আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে প্রার্থীদের করসংক্রান্ত শর্ত পূরণ সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, নতুন করে কোনো বিধিবিধান পরিবর্তন করা হচ্ছে না। শেষ মুহূর্তে কোনো সংশোধনী আনা হলে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে। এ ছাড়া নির্বাচনের কারণে রাজস্ব আদায়ে কোনো প্রভাব পড়বে না বলে মনে করেন তিনি। আয়কর অধ্যাদেশ অনুযায়ী, সংসদ সদস্যপদে প্রার্থী হতে হলে বার্ষিক আয়কর বিবরণী বা রিটার্ন জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, আগামী মঙ্গলবার থেকে দেশব্যাপী আয়কর মেলা শুরু হচ্ছে। রাজধানীর কর মেলা বেইলি রোডের অফিসার্স ক্লাব প্রাঙ্গণে হবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত এই মেলা চলবে। মেলায় নতুন কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) নেওয়া থেকে শুরু করে আয়কর বিবরণী পূরণ, জমা ও কর পরিশোধ—সবই করা যাবে। অন্যদিকে আগামীকাল সোমবার সারা দেশের বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে সেরা করদাতাদের কর কার্ড ও সম্মাননা দেওয়া হবে।

রাজধানীসহ দেশের সব বিভাগীয় শহরে সপ্তাহব্যাপী এই মেলা হবে। শেষ হবে ১৯ নভেম্বর। এ ছাড়া সব জেলা শহরে চার দিন কর মেলা হবে। এ ছাড়া ৩২ টি উপজেলায় দুই দিন মেলা হবে। উপজেলা পর্যায়ে যেসব স্থানে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড ভালো, এমন ৬৮ উপজেলায় বা গ্রোথ সেন্টারে এক দিন মেলা হবে। ২০১০ সালে প্রথমবারের মতো ঢাকা ও চট্টগ্রামে আয়কর মেলার আয়োজন করা হয়।

এবারের কর মেলায় করদাতারা ১০ ধরনের সেবা পাবেন। সেবাগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো, আয়কর বিবরণী বা রিটার্ন জমা; রিটার্ন জমার জন্য কর অঞ্চলভিত্তিক আলাদা বুথ; নতুন ইলেকট্রনিক কর শনাক্তকরণ নম্বর (ই-টিআইএন) ও পুরোনো টিআইএনের বদলে নতুন ইটিআইএন নেওয়ার সুবিধা; কর পরিশোধে ই-পেমেন্টের সুযোগ; মুক্তিযোদ্ধা, নারী, প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ করদাতাদের জন্য আলাদা বুথ; সোনালী, জনতা ও বেসিক ব্যাংকের বুথের মাধ্যমে কর পরিশোধের সুবিধা; অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের (ইআরডি) বিভিন্ন সংস্থার তথ্য জানার জন্য আলাদা বুথ; মেলা প্রাঙ্গণে আয়কর রিটার্ন, ই-টিআইএন আবেদন ফরম ও চালান ফরম সরবরাহ; করদাতার জন্য সহায়তা কেন্দ্র এবং ফটোকপি সুবিধা।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, প্রতিবারের মতো এবারও ব্যবসায়ী, নতুন করদাতা, তরুণ করদাতা, সাংবাদিক, শিল্পীসহ বিভিন্ন শ্রেণিতে কর কার্ড ও সম্মাননা দেওয়া হবে। এ ছাড়া সিটি করপোরেশন ও জেলা পর্যায়ে সর্বোচ্চ করদাতা ও দীর্ঘ সময় ধরে কর দেন এমন করদাতাকে বিশেষ সম্মাননা দেবে এনবিআর। আগামীকাল সোমবার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে এই সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ