প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বঙ্গবন্ধু প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী
নারায়ণগঞ্জে ৫টি আসন নৌকা দেয়া হোক: আইভী

মনজুর আহমেদ অনিক,নারায়ণগঞ্জঃ জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও নাসিক মেয়র ও ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেছেন, অবশ্যই নারায়ণগঞ্জে আমরা চাই নৌকা দেওয়া হোক। কেবল নারায়ণগঞ্জ-৫ নয়, সব আসনেই নৌকা দেয়া হোক। তারপরেও নেত্রী যাকেই দিবেন আমাদের তাকেই মেনে নিতে হবে এই কথাটি আপনারা মাথায় রাখবেন। কারণ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বর্তমানে যিনি প্রধানমন্ত্রী ভবিষ্যতে যদি তিনি প্রধানমন্ত্রী না হতে পারেন তাহলে কিন্তু যুবলীগ, ছাত্রলীগ, আওয়ামী লীগের সকলেরই কিন্তু কাজ করা খুব কঠিন হয়ে যাবে। ১৯৭৫ পরে যেই বিভীষিকাময় পরিস্থিতি ছিল সমগ্র বাংলাদেশে কিন্তু আবারও সেই পরিস্থিতি সৃষ্টি হবে। তাই আপনাদের কথাবার্তা, কাজকর্মে সব কিছুতেই কিন্তু নির্ভর করে মানুষ কিভাবে আপনাদের ভোট দিবে সেটা চিন্তা করা। আমাদের সকলেই উচিত সেদিকে দৃষ্টি রাখা সুতরাং সকলের শুভ কামনা করে এবং আগামী নির্বাচনে আমরা আনন্দমুখর পরিবেশে ভোট দিব পাশাপাশি বসে নির্বাচন করবো। নৌকা দিবে অবশ্যই নৌকা দিবে এই আশা করি।

রোববার সকালে ২নং রেলগেইট আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের যুবলীগের ৪৬ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পন ও কেক কাটা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

শহর যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আহাম্মদ আলী রেজা উজ্জলের সভাপতিত্বে এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আব্দুল কাদির, সহ সভাপতি আদিনাথ বসু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক খালিদ হাসান, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মরিয়ম কল্পনা, সাবেক কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মনির, জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাত তানভীর আহমেদ ও শহর যুবলীগের সিনিয়র সহ সভাপতি কামরুল ইসলাম বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক সেলিম আজহারসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ।

প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে যুুলীগের সকল নেতৃবৃন্দকে শুভেচ্ছা জানিয়ে মেয়র বলেন,আমরা সকলেই জানি যুবলীগ কে প্রতিষ্ঠা করেছিল। আজকের এই দিনে শেখ ফজলুল করিম মনি ভাইয়ের কথা স্মরণ করছি। আপনারা সকলেই জানেন, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে যখন হত্যা করা হয় তখন নির্মমভাবে মনি ভাইকে এবং তার অন্তঃসত্বা স্ত্রী আরজু মনিকেও হত্যা করা হয়। এই বিভীষিকাময় দিনের শোককে শক্তিতে পরিণত করে যুবলীগ আজকে ৪৬ বছর যাবত এগিয়ে যাচ্ছে। অতন্দ্রপ্রহরীর মতো বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সকল কর্মকান্ডে অংশগ্রহণ করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দুর্বার গতিতে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস ভবিষ্যতেও যুবলীগ এই কাজটিই করে যাবে।

আসন্ন নির্বাচন প্রসঙ্গে মেয়র আইভী বলেন, সামনে নির্বাচন তাই আপনাদের কাছে একান্তই অনুরোধ আপনারা সব কিছুতেই যেখানেই বসেন না কেন একটি চায়ের আড্ডা থেকে শুরু করে সামাজিক আচার-বিচার, বিবাহবার্ষিকী যেকোন অনুষ্ঠানে আপনারা বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার কর্মকাণ্ডগুলো সকলের সামনে তুলে ধরবেন। আপনারা নিজেও চেষ্টা করবেন আদর্শবান রাজনীতিবিদ হওয়ার জন্য। সব ধরনের হিংসাত্মক কর্মকাণ্ড পরিহার করে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য যে কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে সেগুলো আপনার বলে যাবে।

জেলা যুবলীগের সহ সভাপতি আব্দুল কাদির বলেন, নির্বাচন উপলক্ষে আমাদেরকে নৌকা প্রতিকের জন্য ভোট চাইতে হবে। আমরা নারায়ণগঞ্জের ৫টি আসনেই নৌকা প্রতিকের নির্বাচন চাই। নেত্রীর নির্দেশ অনুযায়ী কাজ করতে হবে। যুবলীগের নেতাকর্মীদেরকে আজ থেকেই মাঠে নেমে যেতে হবে।

তিনি আরো বলেন, চুনকা পরিবার সবসময় আওয়ামী লীগের সাথে আছে। আমরা কখনও দেশ ছেড়ে পালায়নি এবং ভবিষ্যতেও পালাবো না। দলের দু:সময়েও আমরা পাশে থাকবো। আগামীতে শেখ হাসিনা আবারও ক্ষমতায় আসবে। আমাদেরকে সেই জন্য কাজ করতে হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ