প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জীবননগরে ১১ বছরের শখের বানু নববধূর সাজে চলে গেল শ্বশুর বাড়ি

জামাল হোসেন খোকন : জীবননগর উপজেলার হাসাদহ জাফরাবাজ পাড়ার এগারো বছরের শিশু শখের বানুর পরিবার গত ৬ই জুলাই জীবননগর শহরের হোসেন কাজীর বাড়ি নিয়ে বিয়ে দেয়ার সময় পুলিশ প্রশাসনের হাতে ধরা খেয়ে সেবার বিয়ে থেকে রক্ষা পেলেও এবার সে নববধূর সাঁজে চলে গেল শ্বশুর বাড়িতে।

সচেতন মহলের দাবি পরিবারের পক্ষ থেকে কৌশলে এক সপ্তাহ আগে বিয়ে হলে শুক্রবার তাকে শ্বশুর বাড়ি কার্পাসডাঙ্গায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। তবে সচেতন এলাকাবাসীর দাবী বিয়েটি যে কাজীর মাধ্যমে হয়েছে তাকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনা হোক।

এলাকাবাসী সূত্র থেকে জানা গেছে, জীবননগর উপজেলার হাসাদহ জাফরাবাজপাড়ার মৃত আনু মোল্যার মেয়ে শখের বানুকে(১১) তার পরিবার গত ৬ই জুলাই জীবননগর শহরের মৃত বজলু কাজীর ছেলে হোসেন কাজীর অফিসে নিয়ে গোপনে বিয়ে দেয়ার প্রস্তুতি কালে জীবননগর থানা পুলিশ সে বিয়ে আটকিয়ে দেয়।

ওই বিয়ে সম্পাদন কালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে শখের বানুর মা ও পালিত পিতা আক্কাস আলী সেখান থেকে কৌশলে সটকে পড়ে। তবে পুলিশের হাতে ধরা খায় শখের বানুর দুলা ভাই হবি ও বিয়ে করতে আসা বরের দুলাই ভাই। তাদেরকে ভ্রাম্যমান আদালতে সাত দিনের কারাদন্ডের আদেশ প্রদান করেন। বিয়ে করতে গিয়ে পুলিশের ধাওয়া আর দুলা ভাইয়ের জেল জরিমানার কারণে ওই বর আর এ বিয়ে রাজী হয়নাই।

সে কারণে শখের বানুর পরিবার আবার মেয়েকে বিয়ে দেয়ার জন্য উঠে পড়ে লাগে। এক পর্যায়ে কার্পাসডাঙ্গা এলাকার এক ছেলেকে তাদের মেয়ে শখের বানুকে দেখে পছন্দ করেন এবং গত এক সপ্তাহ আগের শুক্রবার তাকে কৌশলে প্রতিবেশী মাজনের বাড়ীতে নিয়ে হাসাদহ ভাঙ্গা ব্রিজপাড়ার কাজী মাও.আজিজুল হকের মাধ্যমে ১১ বছরের শখের বানুকে বিয়ে পড়ান।

তবে কৌশলে হিসাবে ওই কাজী সাহেব কাবিননামা তাদেরকে দেননি বলে জানা গেছে।

সর্বশেষ শুক্রবার সন্ধ্যায় আগে শখের বানুকে তার স্বামী-শ্বশুরের লোকজন নববধূ বেশে নিয়ে যান। এত কম বয়সে একটি মেয়ের বিয়ে হলেও স্থানীয় জনপ্রতিনিধির দাবি তিনি কিছুই জানেন না।

এদিকে সচেতন মহলের দাবী যিনি কাজী হিসাবে বিয়েটি পড়িয়েছেন তাকে গ্রেফতার করে আইনে সোপর্দ করা হোক।

অন্যদিকে বাল্য বিয়ে দেয়ার ব্যাপারে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরাও ভোটের হিসাবে করতে গিয়ে নানা ভাবে সহযোগীতা করছেন। অনেক সময় তারা আগের জন্ম নিবন্ধন পরিবর্তন করে বয়স বাড়িয়ে নতুন জন্ম নিবন্ধন দিয়ে দিচ্ছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ