প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আগাম আলু চাষে ব্যস্ত নীলফামারীর কৃষক

নূর আলম সিদ্দিকী, নীলফামারী : গত বছরে আগাম আলু চাষ করে ভালো দাম পাওয়ায় এবার আগাম আলু চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন নীলফামারীর কৃষক। আগাম আলু চাষে বদলে যেতে পারে কৃষকের ভাগ্য। কৃষি অফিস জানিয়েছে এবার নীলফামারী জেলায় আগাম আলু চাষ হয়েছে ৪২৯৫ হেক্টর জমিতে। আগাম চাষে ভালো ফলন হওয়ায়,বাজারে আলুর চাহিদা ও দাম ভাল থাকায় চলতি মৌসুমে পরিবার ও শ্রমিক নিয়ে আলুর পরিচর্যায় ব্যস্ত কৃষক। এবার নীলফামারী সদর, জলঢাকা ও কিশোরগঞ্জ উপজেলার কৃষকরা আগাম আলু চাষাবাদে বেশী আগ্রহী হয়ে পড়েছেন।মাঠে কর্মব্যস্তে যেন দম ফেলার সময় নেই।

তারা গতবারের ধানের ভাল দাম না পেয়ে লচ পোশাতে আগাম আলু চাষে ঘুরে দাড়াতে চান কৃষক। রাত পোহালেই দেখা যায় কিষাণ কিষাণীরা মাঠে।আগাম আমন ধান কর্তন করে সাগিতা ৭, গ্রানুলা, ডায়মন্ড, কার্টিনাল, কারেজ, এষ্টারিজ, রোমানা জাতের আগাম আলু চাষাবাদ করেছেন কৃষকরা। পাশাপাশি স্থ্যানীয় জাত ষাইটা, লাল পাকরী, শিল বিলাতি, ঝাউ বিলাতি, লাউপাটনাই আবাদ করছেন।

আগাম আলু চাষীরা কৃষি বিভাগের পরামর্শ নিয়ে রাসায়নিক সার কম ব্যবহারে উৎপাদন খরচ অনেকটাই কমবে বলে যানান কৃষি অফিস। এবার আগাম আলু চাষ হয় নীলফামারী সদরে ৮৫০ হেক্টর, সৈয়দপুরে ৮০ হেক্টর, ডোমারে ১৩৫ হেক্টর, ডিমলায় ১৫ হেক্টর, জলঢাকায় ৩১৫ হেক্টর, কিশোরগঞ্জে ২৯০০ হেক্টর জমিতে। সরেজমিনে গিয়ে ১লা নভেম্বর সদরের টুপামারী ইউনিয়নের সুখধন গ্রামের আলু চাষী মো: আব্বাজ মিয়া,গবরা মিয়ার সাথে কথা হলে তারা মুচকী হাঁসি দিয়ে বলেন,গতবার আমরা আগাম আলু চাষে অনেক লাভবান হয়েছি। এবার আশা করি আমরা গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণ লাভবান করবো।

জেলা উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মো: আবুল কাশেম বলেন, এবার নীলফামারীতে মোট ৪২৯৫ হেক্টর জমিতে আগাম আলু চাষ হচ্ছে। আমরা কৃষকদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভালো ফলনের ও রোগবালাই মুক্তির পরামর্শ দিয়ে আসছি। আশা রাখি গতবারের চেয়ে এবার ভালো ফলন পাবে কৃষকেরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ