প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৫৮ টি ব্যাংকের মধ্যে ৫৭ টিই বিদেশগামী শ্রমিকদের ঋণ দেয় না

আদম মালেক : ৫৮ টি তফসিলি ব্যাংকের মধ্যে ৫৭ টি ব্যাংকই বিদেশগামী শ্রমিকদের ঋণ দেয় না। এমনকি প্রবাসী বাংলাদেশীদের জন্য এনআরবি,এনআরবিসি ও এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের বিশেষ প্রডাক্ট(ঋণের ধরণ) থাকলেও নেই বিদেশগামীদের ঋণ। রেমিটেন্স সংগ্রহে তৎপর হলেও বিদেশে শ্রমিকদের কর্মসংস্থানে এই ৩ ব্যাংকের ভূমিকাও শূন্য। বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলির দাবি,এসব ব্যাংক নতুন। প্রবাসে কর্মসংস্থানে ঋণ গ্রহণেচ্ছুকরা গ্রামে থাকে। তাই গ্রামাঞ্চলে শাখা খুলতে হবে। অথচ চলতি বছরের মার্চ পর্যন্ত এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংক শহরে ২৮টি আর গ্রামে ২০টি শাখা খোলে। এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকের ৬২ টি শাখার মধ্যে ৫৩টিই ঢাকার বাইরে। এনআরবি ব্যাংকের ঢাকায় ৯ টি শাখা আর ঢাকার বাইরে রয়েছে ২৮টি।
সদএ প্রসঙ্গে এনআরবি(গ্লোবাল) ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. গোলাম সারওয়ার বলেন, আমরা প্রবাসীদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা নিশ্চিতে কাজ করি। তাদের গৃহায়ণ ও ছেলেমেয়েদের শিক্ষাঋণ দিয়ে থাকি কিন্তু প্রবাসীদের বিদেশ গমনে ঋণ বিতরণ শুরু করিনি। আমাদের নতুন ব্যাংক। এ ঋণ বিতরণে আমাদের আরও সময় লাগবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানায়, বিদেশগামী শ্রমিকদের ঋণ জামানতহীন হওয়ার কারণে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা থাকা সত্বেও এসব ব্যাংকের ম্যানজাররা ঝুঁকি নিতে চান না। এ জন্য বৈধ কাগজপত্র থাকা সত্বেও বিদেশ গমনেচ্ছুক শ্রমিকরা ঋণ পায় না।
বাংলাদেশ ব্যাংক প্রদত্ত প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০১৭ সালে এনআরবি গ্লোবাল ব্যাংকের বিতরণকৃত ঋণ শিল্পখাতে ৬৬ হাজার মিলিয়ন,এসএমই খাতে ১৫০.১ মিলিয়ন ও কৃষি খাতে ১০৯৬.৪ মিলিয়ন টাকায় উন্নীত হয়। এনআরবি আর এনআরবি কমার্শিয়াল ব্যাংকও এসব খাতে ঋণ বিতরণ করে অথচ প্রবাসী শ্রমিকদের কর্মসংস্থানে এসব ব্যাংকের কোনো ঋণ নেই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত