প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৌদি শিশুদের কাছে মিষ্টির চেয়ে মোবাইল ফোন প্রিয়

রাশিদ রিয়াজ : মাত্র ৭ বছর বয়সেই সৌদি শিশুরা মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারায় অধিকাংশ সময় কাটছে তাদের অনলাইন নিয়ে। এক গবেষণায় বলা হচ্ছে ৮২ ভাগ সৌদি অভিভাবক তাদের বাচ্চাদের হাতে ওই বয়সে মোবাইল ফোন তুলে দেন। নর্টন সিম্যানটেক নামে একটি সংস্থা এ জরিপ করেছে। আরব বিজনেস

অবশ্য এ গবেষণায় দেখা গেছে চারজন অভিভাবকের মধ্যে তিনজনই তাদের বাচ্চাদের হাতে এত কম বয়সে মোবাইল ফোন তুলে দিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েছেন। এমনকি তারা নিজেদের দোষী মনে করেন। এ গবেষণায় ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যেও ৭ হাজার অভিভাবকের কাছে থেকে তথ্য সংগ্রহ করা হয়। আর এ দুটি অঞ্চলের ৫ থেকে ১৬ বছর বয়সী ছেলেমেয়ের কাছ থেকে তথ্য মেলে মিষ্টির চেয়ে মোবাইল ফোন তাদের কাছে বেশি প্রিয়।

নর্টন সিম্যানটেক’এর ভাইস প্রেসিডেন্ট নিক শাও বলেন, আধুনিককালে অভিভাবকের দায়িত্ব পালন খুব সহজ নয়। আগের দিনে শিশুদের সব্জি খাওয়ানো, সময়মত রাতে ঘুমাতে বাধ্য করা ও হোমওয়ার্ক করানো কঠিন ছিল। এখন তার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে প্রযুক্তির ঝক্কি-ঝামেলা। তারা স্মার্ট ফোন, অ্যাপ, ট্যাবলেট নিয়ে সারাক্ষণ বসে থাকে। ল্যাপটপে প্রচুর সময় ব্যয় করে। অভিভাবকের জন্যে তা পর্যবেক্ষণ করা খুবই কঠিন। সৌদি শিশুরা দিনে অন্তত ৩ ঘন্টা সময় মোবাইল ফোন বা নেটে সময় ব্যয় করে। গড়ে তারা খেলাধূলায় যে সময় ব্যয় করে তারচেয়ে অনেক বেশি সময় তারা ইন্টারনেটে পড়ে থাকে। বিশ্বে ব্রিটেনের শিশুরা সবচেয়ে বেশি সময় ব্যয় করে নেটে আর সৌদি শিশু রয়েছে তৃতীয় স্থানে।

কিন্তু সৌদি শিশুরা বলে ইন্টারনেট তাদের পড়াশুনায় সাহায্য করে এমনকি দায়িত্বশীল হতেও। তবে ৫৩ ভাগ সৌদি অভিভাবক বলছেন, তাদের বাচ্চারা ঠিকমত ঘুমায় না তার কারণও এই ইন্টারনেট বা অনলাইন। তার এর বিকল্প দিতে ব্যর্থ বলেও অকপটে স্বীকার করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত