Skip to main content

‘৩৬০ ডিগ্রি’ বল কি বেআইনি?

স্পোর্টস ডেস্ক : চক্রাকারে ঘুরে বল ডেলিভারি দেওয়া সেই শিবা সিংকে নিয়ে বিশ্বক্রিকেটে তুমুল আলোচনা চলছে। উত্তর প্রদেশের এই বাঁহাতি স্পিনারের করা ওই বলটি ‘ডেড বল’ কি না সেটি নিয়ে শুরু হয়েছে বিতর্ক। ক্রিকেটের আইনপ্রণেতা সংস্থা মেরিলিবোন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি) পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে কথা বলছে। ভারতের অনূর্ধ্ব-২৩ রাজ্য দলগুলো নিয়ে আয়োজিত ঘরোয়া টুর্নামেন্ট সি.কে নাইড়ু টুর্নামেন্টে শিবা সিং অদ্ভুত ওই বলটি করেন। কল্যাণী স্টেডিয়ামে চার দিনের ম্যাচটি ছিল বেঙ্গল ও উত্তর প্রদেশের মধ্যে। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের এই স্পিনার তৃতীয় দিন নিজের রান আপেই ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে তারপর ডেলিভারি দেন। মাঠের আম্পায়ার ডেলিভারিটিকে ‘ডেড বল’ ঘোষণা করেন। এমসিসি বলছে, ‘প্রথমত আইনে এটা কোথাও বলা নেই বোলার কীভাবে রানআপ নিবেন। ২১.১ আইন অনুযায়ী বোলারকে আইন মেনে বল করতে হবে। এই ক্ষেত্রে বল লেফট আর্ম রাউন্ড দ্য উইকেট হতে পারে। কিন্তু কোথাও বলা নেই বোলারের বল করতে যাওয়ার ভঙ্গিটা কী হবে।’ ‘যদি এই ৩৬০ ডিগ্রি ঘুরে বল করাটা বোলারের প্রতি বলে হয় এবং সেটা যদি ব্যাটসম্যানের মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটায় তা হলে আম্পায়ার ভাবতে পারে। এমনিতে এই ঘুরে যাওয়াটা কোনোভাবে বাইরে থেকে সমস্যা সৃষ্টি করার মতো নয়। যদি না বোলারের উইথ, রিলিজ পয়েন্ট বা লেংথ পরিবর্তন হয়। এটা যদি শুধু রানআপের অংশ হয় তা হলে কোনও সমস্যা নেই।’ আইনে যা আছে - ৪১.৪ আইনে বলা হয়েছে, কোনও ফিল্ডার যদি ইচ্ছে করে ব্যাটসম্যানের মনোযোগে ব্যাঘাত ঘটায়, বল তার ব্যাটে আসার আগের মুহূর্তে বা ব্যাটে আসার পর তা হলে সেটা অন্যায়। ৪১.৪.২ আইন অনুযায়ী, আম্পায়ার যদি মনে করেন তেমন কোনও ঘটনা কোনও ফিল্ডার ঘটিয়েছেন তা হলে তিনি ‘ডেড বল’ ডাকতে পারেন। এবং অন্য আম্পায়ারকে তার কারণ জানাতে পারেন।