প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দেশে গণঅভ্যুত্থান হবে : খন্দকার মাহবুব

জুয়েল খান : বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেছেন, দেশের জনগণ বর্তমান সরকারকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। সরকারের দুর্নীতি, গুম, হত্যা আর গণগ্রেফতারের কারণে দেশের মানুষ এখন অতিষ্ঠ। জনগণ মুক্তি চায়। শুক্রবার রাতে ডিবিসি নিউজের এক আলোচনায় তিনি একথা বলেন।

খন্দকার মাহবুব হোসেন বলেন, আমরা দাবি আদায় করেই নির্বাচনে যাবো। অতীতে বিএনপি কি ভুল করেছে সেটা বড় কথা নয় বড়কথা হচ্ছে এখন দেশে কী অবস্থা বিরাজ করছে। মানুষ এখন কী তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারছে ? দুর্ভাগ্যের বিষয় হলো এই সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে যখন মিথ্যা কথা বলা হয়। কারণ প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন আর কোনো ধরনের রাজনৈতিক গ্রেফতার হবে না এবং সভা সমাবেশে কোনো ধরনের বাধা প্রদান করা হবে না। কিন্তু এখন বিএনপির নেতাকর্মীদেরকে গণহারে গ্রেফতার করা হচ্ছে, এইসাথে বিএনপির শান্তিপূর্ণ সভা-সমাবেশে বাধা দেয়া হচ্ছে। এই কয়দিনে সারাদেশে প্রায় ২ হাজারের মতো বিএনপির নেতাকর্মীদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তিনি বলেন, তিনি বলেন আমারা এই সরকারের কাছ থেকে আমাদের দাবি আদায় করেই ছাড়বো। কয়েক দিনের মধ্যে দেশে গণঅভ্যুত্থান হবে এবং সেই গণঅভ্যূথ্যান হবে গণতন্ত্রের জন্য, মানুষের ভোটের অধিকার আদায়ের জন্য।
তিনি আরো বলেন, এই সরকার শুধুমাত্র পুলিশ-প্রশাসনের ওপর নির্ভর করে ক্ষমতায় টিকে আছে। তাদের সাথে জনগণের কোনো ধরনের সম্পৃক্ততা নেই। আইনশৃঙ্খলা বাহীনির সদস্যরাও এদেশের সন্তান, তারা যখন দেখছে দেশের জনগণ এই সরকারকে আর চায় না। সরকারের জুলুম, নিপীড়ণে দেশের মানুষ অতিষ্ঠ। এখন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সরকারকে কতোটা সমর্থন করবে সেটাই দেখার বিষয়।

তিনি বলেন, আমরা মনেপ্রাণে বিশ্বাস করি আমাদের যে দাবি, সাধারণ মানুষ যাতে স্বাধীনভাবে তাদের ভোট দিতে পারে। সেই দাবি সরকারের কাছ থেকে আদায় করেই নির্বাচনে আসবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। সরকার বাধ্য হয়েই আমাদের দাবি মেনে নেবে।
তবে তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশন এখন যা বলছে এটাই শেষ না। জনগণের দাবির মুখে তফসিল পরিবর্তন হতে পারে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সাথে সমন্বয় করেই বিএনপি নির্বাচনে যাবে।

জামায়াতে ইসলামী প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যেহেতু জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল হয়েছে তাই তারা নির্বাচনে আসতে পারছে না এবং তাদের যে ভোটার আছে তারা আমাদের সাথেই থাকবে। নির্বাচন এবং আন্দোলনের বিষয়ে এখনো চূড়ান্তÍ সিদ্ধান্ত হয়নি। এখন আমরা একটা বিষয়ে একমত হয়েছি, খালেদা জিয়ার মুক্তি। ডিবিসি নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ