প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নির্বাচনে অংশ নেয়াও আন্দোলনের অংশ: রওনক জাহান

মো: মারুফুল আলম: যুক্তরাষ্ট্রের কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক রওনক জাহান বলেছেন, বিএনপি বা ঐক্যফ্রন্টের সামনে তেমন বিশেষ কোন পথ খোলা নেই। রাজপথে কঠিন আন্দোলনের সক্ষমতাও নেই, তাই আন্দোলনের অংশ হিসেবে তারা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারেন। শনিবার বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাতকারে তিনি এ কথা বলেন।

রওনক জাহান বলেন, তারা যদি নির্বাচনে না যেতে চান, তাহলে তাদেরকে সাধারণত রাজপথে বিরাট আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। কিন্তু গতবারেও এরকম আন্দোলনের চেষ্টা করা হয়েছিলো, কোন লাভ হয়নি, বরং ক্ষতি হয়েছে। সাধারণ মানুষ চাইবে, এবারের নির্বাচনটা যেন গতবারের মত একতরফা না হয়, এবারেরটা যেন প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হয়। সাধারণ মানুষ এটাও বুঝতে পারছে যে, বিএনপি সমান সুযোগ সুবিধা পাচ্ছে না এবং হয়তো পাবেও না। তাদের নেতারা যদি নির্বাচনে অংশ নেওয়াটা আন্দোলনের একটা পার্ট হিসেবে বিবেচনা করেন, সেটাই ভাল।

তিনি বলেন, প্রথম কথাটা হচ্ছে আন্দোলন করা যৌক্তিক হবে কি না এবং দ্বিতীয় কথা হচ্ছে সেই সক্ষমতা কতটুকু আছে। তারা গত পাঁচ বছর থেকেই অনেক চাপের মুখে আছে। তাদেরকে নানা রকম মামলার সম্মুখীন হতে হয়েছে। এ প্রেক্ষিতে বলা যায়, তারা যদি আন্দোলন করতে চান, তাহলে সরকার আরও কঠোর হবে। যেহেতু সেরকম আন্দোলনের সক্ষমতা নেই, তাই বলা যায় তাদেরকে নির্বাচনের দিকে আগাতে হবে। কিন্তু পাঁচ বছর ধরে ভেতরে ভেতরে দলটি কতটুকু প্রস্তুতি নিয়েছে সেটা বলা যাচ্ছে না।

তিনি আরো বলেন, কিছু দাবি মানা হয় আর কিছু দাবি মানা হয় না, এটাই নিয়ম। এখানে ঐক্যফ্রন্টের বেশিরভাগ দাবিই কিন্তু মানা হয়নি। সরকার ভাবছে, তাদের হাতে সব রকমের ক্ষমতা আছে, সুতরাং তাদের সবগুলো দাবি না মানলেও চলে। কারণ ঐক্যফ্রন্ট যতই অসুবিধায় থাকুক না কেন নিশ্চয়ই শেষ পর্যন্ত আরেকটা একতরফা নির্বাচন তাদের নেতারা চাইবেন না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ