প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজধানীতে জুট ব্যবসায়ীকে গুলি করে হত্যা

মোস্তাফিজুর রহমান: ব্যবসায়ীক দ্বন্দ্বে রাজধানীর মিরপুরের পল্লবীতে প্রতিপক্ষের গুলিতে মহিউদ্দিন খান মোহন (৪২) নামের এক জুট ব্যবসায়ী নিহত হয়েছেন। একই ঘটনায় আহত হয়েছেন মো. হাসান আলী (৪২) নামের এক পথচারীও।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পল্লবীর প্যারীস রোডে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

জানা গেছে, নিহতের বাবার নাম মৃত আব্দুর রশিদ। মিরপুর ১০ নম্বর ডি ব্লকের ৩০ নম্বর লেনের ২১ নম্বর বাড়ির নিজস্ব ফ্লাটে স্ত্রী শিখা ও চার ছেলে-মেয়েকে নিয়ে থাকতেন। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জের জয়কা এলাকায়।

হাসপাতালে নিহতের ভাগ্নে মো. আল আমিন জানান, রাতে বাসায় যাওয়ার সময় প্যারীস রোডে দুর্বৃত্তরা এসে মোহনকে এলোপাতাড়ি গুলি করে চলে যায়। এতে মোহনের বুকে-পেটে গুলিবিদ্ধ হয়েছে। খবর পেয়ে গুরুতর অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে রাত ১০টায় ঢামেক হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে গুলিবিদ্ধ হাসান মিরপুর এলাকার মেঘনা নামক একটি বেকারির শ্রমিক। তার ডান হাতে কনুইতে গুলি বিদ্ধ হয়েছে। তিনি ঢামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

হাসান সাংবাদিকদের জানান, বিভিন্ন দোকানে বেকারির পণ্য ডেলিভারি দিয়ে যাওয়ার সময় হঠাৎ তার হাতে একটি গুলি বিদ্ধ হয়। পরে স্থানীয় মফিজুল নামের একজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান।

পল্লবী থানার পরিদর্শক (অপারেশন) ইমরানুল ইসলাম জানান, মোটরসাইকেলে করে দুই ব্যক্তি এসে মোহনকে লক্ষ্য করে গুলি করলে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। ব্যবসায়ীক দ্বন্দ্বের জেরে কয়েকমাস আগেও একবার মোহন গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন। ঘটনায় জড়িতদের শনাক্তসহ আটকের চেষ্টা চলছে।

ঢামেক পুলিশ বক্সের ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া জানান, নিহতের লাশ মর্গে রাখা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ