প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ওয়ানডেতে চলতি বছরের দ্বিতীয় জয় অস্ট্রেলিয়ার

স্পোর্টস ডেস্ক : যাক, অবশেষে অষ্টম ম্যাচে এসে ওয়ানডে ক্রিকেটে জয়ের দেখা পেল অস্ট্রেলিয়া। চলতি বছরে জানুয়ারিতে জয়ের পর গতকাল দ্বিতীয় জয় পেয়েছে অজিরা। বছরের এগারোতম ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ৭ রানে জয় পেয়েছে। আর এই জয়ে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচে হারের পর ১-১ এ সমতায় ফিরল অ্যারন ফিঞ্চের দল।

অ্যাডিলেডে এদিন টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ৪৮.৩ ওভারে ২৩১ রানে অলআউট হয় অস্ট্রেলিয়া। জবাবে জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে অজি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৯ উইকেট হারিয়ে ২২৪ রান তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা। তাতেই জয়ের দেখা পায় অজিরা। এই জয়ের পর শেষ ২০টি ম্যাচে তৃতীয় জয় অজিদের! হেরেছে ১৫টিতে আর বাকি দুটি পরিত্যক্ত।

২৩১ রানে জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৬৪ রানেই ৪ উইকেট হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা। এরপর অধিনায়ক ডু প্লেসিস ও ডেভিড মিলার মিলে দলের হাল ধরেন। তবে দলীয় ১৪২ রানে ব্যক্তিগত ৪৭ রানে আউট হন ডু প্লেসিস। এরপর ১৪ রান করে দলীয় ১৭৪ রানে সাজঘরে ফেরেন অলরাউন্ডার প্রেটোরিয়াস। এরপর ৩ রান করে বোল্ড হয়ে ফেরেন স্টেইন।

দলীয় ১৮৭ রানে ইনিংস সর্বোচ্চ ৫১ রান তুলে মিলার ফেরেন এলবির শিকার হয়ে। এরপর ৯ রান করে দলীয় ২০২ রানে ফেরেন রাবাদা। তবে শেষ উইকেটে এনগিদি ও ইমরান তাহির জয়ের আশা জাগালেও অজি বোলারদের বোলিংয়ের কাছে হার মানে আফ্রিকা। এনগিদি ১৯ ও ইমরান তাহির ১২ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন। অস্ট্রেলিয়ার স্টোইনিস ৩টি উইকেট নেন। স্টার্ক ও হ্যাজলউড ২টি করে উইকেট নেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১২ রানে ব্যক্তিগত ৮ রানে ফেরেন ট্রাভিস হেড। এরপর ২২ রান করে শন মার্শ ফেরেন দলীয় ৬৬ রানে। এরপর অধিনায়ক ফিঞ্চ ৪১, লিন ৪৪, ক্যারে ৪৭ রান করে আউট হন। তবে শেষ দিকে অ্যাডম জাম্পা ২২ ও জশ হ্যাজলউডের ১০ রানে দলীয় সংগ্রহ দাঁড়ায় ২৩১ রান। প্রোটিয়াদের হয়ে রাবাদা ৪টি ও প্রেটোরিয়াস ৩টি উইকেট নেন। এছাড়াও স্টেইন ২টি ও এনগিদি পান ১টি উইকেট।

গত রোববার পার্থ স্টেডিয়ামে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে ৬ উইকেটে হারতে হয় অজিদের। তিন ম্যাচ সিরিজের শেষ ম্যাচে রোববার জয় পেলে ঘরের মাঠে ওয়ানডে সিরিজ জিতবে অজিরা।