প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিলেটের স্কোরগুলোই আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে আরিফুলের

নিজস্ব প্রতিবেদক : জিম্বাবুয়ের বিরুদ্ধে সিলেট টেস্টে রীতিমত বোকা বনে গেছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। ঘরের মাঠে যেখানে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডকে হারাতে শুরু করেছে সেখানে হঠাৎ করেই জিম্বাবুয়ের কাছে পরাজয়! যেটা মানতে পারছেন না দেশের ক্রিকেটভক্তরা। তবে এ থেকে ঘুরে দাঁড়ানোর দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করছেন ক্রিকেটাররা।

শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা টেস্ট নিয়ে আশার বাণী শুনিয়েছেন সিলেট টেস্টেই অভিষিক্ত হওয়া অলরাউন্ডার আরিফুল হক। যে ম্যাচের সর্বোচ্চ রান (৪১ ও ৩৮) সংগ্রাহকও ছিলেন তিনি। অভিষেক টেস্টেই এমন পারফর্মেন্স কিছুটা তৃপ্তি তো দিতেই পারে যে কোন ক্রিকেটারকে। তবে দলের হারেই যে তৃপ্তি উবে গেছে তার।

কিন্তু জাতীয় দলের এই ক্রিকেটার ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্টের কিছুটা ভাল পারফরম্যান্সের তৃপ্তিতে ভাসতে রাজি নন।জানিয়েছেন, আরও বড় কিছু করে দেখাতে চান তিনি। নিজের সেই লক্ষ্য শতভাগ পূরণ করতে না পারলেও কাছাকাছি যেতে চান ২৫ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার।

‘আত্মতৃপ্তি আসলে আমি নিতে চাই না। কারণ এখনও আমি কিছুই করিনি। আমি আরও বড় কিছু করার চিন্তা করি। লক্ষ্য শতভাগ না হলেও ৯০ ভাগ যেন অর্জন করতে পারি। আমার যেটা কাজ সেটাই আমি করতে চাই।’ মিরপুরে অনুশীলন শেষে বলেন আরিফুল।

সিলেট টেস্টে নামার আগে এনসিএলে দ্বিশতক করেছিলেন আরিফুল। সেই ফর্ম সিলেট টেস্টে ধরে রাখার পর মিরপুরে দ্বিতীয় টেস্টের আগে ঐ ইনিংসগুলোই আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে আরিফুলকে। সংবাদ মাধ্যমের সাথে আলাপকালে একথা জানিয়েছেন তিনি।

এই দুটি ইনিংস আরিফুলের চিন্তা ধারা বদলে দিয়েছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে যোগাচ্ছে বাড়তি আত্মবিশ্বাস। এটাই তিনি মিরপুর টেস্টে কাজে লাগাতে চান। ‘প্রথম টেস্ট যেহেতু, ভালোই গিয়েছে। আমার আত্মবিশ্বাস বেড়েছে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলাররা সহজে বাজে বল দিবে না। আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে। আসলে সিলেট টেস্ট খেলে আমার চিন্তা ভাবনায় পরিবর্তন এসেছে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ