প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বরিশালের চায়ের দোকানগুলোতে নির্বাচনী আলোচনার ঝড়

খোকন আহম্মেদ হীরা, বরিশাল : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর মুহুর্তের মধ্যে পাল্টে গেছে বরিশালের রাজনৈতিক অঙ্গন। রাতেই নির্বাচন কমিশনারকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়ে জেলার ছয়টি নির্বাচনী এলাকায় আনন্দ মিছিল করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও তার সকল সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এদিকে তফসিল ঘোষণার পর নির্বাচনকে সামনে রেখে অবৈধ অস্ত্রধারী, সন্ত্রাসী ও নাশকতাকারীদের কঠোর হস্তে দমন করতে র‌্যাব-৮-এর আওতাধীন বরিশাল, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, ভোলা, পটুয়াখালী, বরগুনা, ফরিদপুর, রাজবাড়ী, গোপালগঞ্জ, মাদারীপুর এবং শরীয়তপুরে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পাশাপাশি মোটরসাইকেল নিয়ে পৃথকভাবে নিরাপত্তা মহড়া দিয়েছে র‌্যাব ও পুলিশ সদস্যরা।

বরিশাল র‌্যাব অফিস সূত্রে জানা গেছে, যেকোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি ও স্বাভাবিক জনজীবনে কেউ যাতে সমস্যা তৈরি করতে না পারে, সেজন্য র‌্যাবের পক্ষ থেকে বাড়তি টহল দেয়া হচ্ছে। নির্বাচনকালীন এ মহড়া অব্যাহত থাকবে। মানুষ যাতে স্বাভাবিকভাবে জীবনযাপন করতে পারে তার জন্য সর্বোচ্চ নিরাপত্তা গ্রহণ করা হয়েছে। কেউ প্রতিবন্ধকতা তৈরি করলে কঠোর ব্যবস্থা নেবে র‌্যাব সদস্যরা। জেলার আগৈলঝাড়া থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেনের নেতৃত্বে মোটরসাইকেল নিয়ে শান্তি মহড়া দিয়ে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান জানান দেয়া হয়েছে।

সূত্রমতে, নির্বাচনকে সামনে রেখে বৃহস্পতিবার রাতে বরিশাল জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ত্রী আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ এমপির সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সহসভাপতি বেগম সাহান-আরা আব্দুল্লাহ, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুস এমপি, সিটি মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ, জেবুন্নেছা আফরোজ এমপি, মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম আব্বাস চৌধুরী দুলাল, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন প্রমুখ।

খোঁজনিয়ে জানা গেছে, তফসিল ঘোষণার পর শুক্রবার সকাল থেকে নির্বাচনী এলাকায় পুরোদমে গণসংযোগ, উঠান বৈঠক ও কেন্দ্র কমিটি গঠনে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন আওয়ামী লীগ ও ছোট ছোট রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দরা। তবে মাঠে নেই বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থীরা। বরিশাল-১ আসনে আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী বর্তমান সাংসদ আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর সমর্থনে শুক্রবার গৈলা ইউনিয়নে প্রথম নির্বাচনী উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভা শেষে ভোট কেন্দ্র কমিটি গঠণ করা হয়। এছাড়া ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত প্রার্থী মোঃ রাসেল সরদার মেহেদীর সমর্থনে দিনভর ব্যাপক গণসংযোগ করা হয়েছে।
বরিশাল-২ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী বর্তমান সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট তালুকদার মোঃ ইউনুসের সমর্থনে ব্যাপক গণসংযোগ শেষে উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে বক্তারা বলেন, প্রার্থী যেই হোকনা কেন নৌকা মার্কাকে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী করার জন্য বর্তমান সাংসদ নির্দেশ দিয়েছেন। একই বৈঠকে ভোট কেন্দ্র কমিটি গঠণ করা হয়েছে।

একই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী বাংলার বাঘ শেরেবাংলা একে ফজলুল হকের দৌহিত্র এবং প্রয়াত মন্ত্রী একে ফায়জুল হকের জেষ্ঠ পুত্র ফাইয়াজুল হক রাজু দিনভর গণসংযোগ শেষে উঠান বৈঠক করেছেন। আওয়ামী লীগের সাবেক সহসম্পাদক ফাইয়াজুল হক রাজু বর্তমান সরকারের দশ বছরের ব্যাপক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকা মার্কায় ভোট দেয়ার আহবান করেন। রাজু তার বক্তব্যে বলেন, আমার বাবা চারবার এ আসনে এমপি নির্বাচিত হয়েছিলেন। সেই একই আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমি দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী। দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকা প্রতীক উপহার দিলে দাদা ও বাবার মতো সততা এবং যোগ্যতা দিয়ে দলের নেতাকর্মীকে সাথে নিয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করবো। জানা গেছে, ওই আসনে আওয়ামী লীগের অপর মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ হাবিবুর রহমান ও সাবেক ছাত্রলীগ নেত্রী সৈয়দা রুবিনা আক্তার মীরা শুক্রবার দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন।

একইভাবে বরিশাল-৩ আসনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহসম্পাদক মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মোঃ মিজানুর রহমান শুক্রবার সকালে দলীয় মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। একই আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী আতিকুর রহমান দিনভর নির্বাচনী এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ ও উঠান বৈঠক করেছেন। বরিশাল-৪ আসনে আওয়ামী লীগের অন্যতম মনোনয়ন প্রত্যাশী সেনা কল্যান পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর (অবঃ) মহসীন সিকদার, নতুন ধারা বাংলাদেশের চেয়ারম্যান মোমিন মেহেদী ব্যাপক গণসংযোগের পাশাপাশি উঠান বৈঠক করেছেন। বরিশাল-৫ আসনের আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপকমিটির সদস্য এবং স্বেচ্ছাসেবী এস আর সমাজ কল্যান সংস্থার প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ সালাহউদ্দিন রিপন গণসংযোগের পাশাপাশি কয়েকটি উঠান বৈঠকে অংশগ্রহণ করে নৌকা মার্কায় ভোট প্রার্থনা করেন।

একইসাথে নারী জাগরনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করা সালাহউদ্দিন রিপনের সমর্থনে সদর উপজেলার শতাধিক নারী কমিটির কয়েক হাজার নারীরা ভোটারদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে নৌকা মার্কায় ভোট প্রার্থনা করেছেন। সবমিলিয়ে তফসিল ঘোষণার পর শুক্রবার সকাল থেকে দিনভর নির্বাচনী আলোচনার ঝড় উঠেছে বরিশালের প্রতিটি নির্বাচনী এলাকার পাড়া ও মহল্লার চায়ের দোকানগুলোতে। তবে তফসিল ঘোষণার পূর্বে প্রতিটি নির্বাচনী এলাকায় বিএনপির উল্লেখযোগ্য নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর তারা গাঁ ঢাকা দেয়ায় এখনও মাঠে নামেননি বিএনপির সম্ভাব্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত