প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শেখ হাসিনার সৃজনশীল নেতৃত্ব আবার নতুন করে প্রতিষ্ঠিত হবে

রাশেদুল ইসলাম : শেখ হাসিনার সৃজনশীল নেতৃত্ব আবার নতুন করে প্রতিষ্ঠিত হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোন চাপে পড়ে সংলাপ করেননি, খুব সহজ এবং সাবলীল প্রক্রিয়ায় সংলাপটি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে চ্যানেল২৪ এর মুক্তবাক অনুষ্ঠানে এমনটাই মন্তব্য করেন রাজনৈতিক বিশ্লেষক সুভাষ সিংহ রায়।

তিনি বলেন, এ সংলাপটি ২০১৩ সালের ২৮ অক্টোবর হতে পারত, যেদিন প্রধানমন্ত্রী তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে টেলিফোনে সংলাপের আহ্বান জানিয়েছিলেন। সম্ভাব্য ২৫ শে অক্টোবর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বেগম খালেদা জিয়া বলেছিলেন, যদি ২/৩ দিনের মধ্যে সংলাপের আয়োজন করা না হয় তাহলে দেশ অচল করে দিবে। সেই প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী ৩৭ মিনিট ধরে করুণা বিনয় করেছিলেন। এ জন্য তাকে এমন সব বাক্য  শুনতে হয়েছে, যার ফলশ্রুতিতে জাতীয় চার নেতার স্মরণ সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন যে তাকে অনেক অপমান সহ্য করতে হয়েছে। তারপরও দেশ এবং গণতন্ত্রের দিকে তাকিয়ে করতে হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ২৪ শে জানুয়ারি আরাফাত রহমান কোকোর অস্বাভাবিক মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী ছুটে গিয়েছিলেন, সেদিনও সংলাপের কোনো উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়নি। কিন্তু শেখ হাসিনা তার দায়িত্ব দক্ষতার সাথে পালন করেছেন।

তিনি আবারও বলেন, দুটি রাজনৈতিক দলই বর্তমানে একটি চ্যান্ঞ্জের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। ফলে এখনো পর্যন্ত কেউ বলেনি আমরা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব না বা নির্বাচনকে প্রতিহত করব। কারণ সরকারের কিছু দায়বদ্ধতা রয়েছে এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আগেই বলেছেন, ২০১৪ সালের ৫ই জানুয়ারি তার পছন্দের ছিল না। অন্যদিকে, বিএনপির পক্ষে নির্বাচন থেকে দূরে সরে যাওয়ার সুযোগ নেই। তাই এমন পরিস্থিতিতে নির্বাচন কেমন হবে এমন ভাবনা নাগরিকদের মাঝে আছে। নাগরিকদের মাঝে উৎকন্ঠা বিরাজ করছে।সকলেই বুঝে এবারের পরিস্থিতিটা ভিন্ন।

সুভাষ সিংহ রায় প্রধানমন্ত্রীর প্রশংসা করে বলেন, অনেকগুলো গুরুত্বপূর্ণ অর্জন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে জাতি দেখেছে এবং বাংলাদেশের উন্নয়ন, অবকাঠামো উন্নয়ন, বাংলাদেশের মর্যাদা দেশের বাইরে যেমন প্রতিষ্ঠা করেছেন, তেমনি অন্তর্ভুক্তকালীন যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে তা এই সরকারের অধীনেই হবে বলে তিনি মনে করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ