প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঢাকা-৫ আসনে নেতাকর্মীদের মধ্যে কোনো দ্বন্দ্ব নেই : হাবিবুর রহমান মোল্লা

রফিক আহমেদ : ঢাকা-৫ নির্বাচনী এলাকায় তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে কোনো দ্বন্দ্ব নেই, তারাই হচ্ছে আওয়ামী লীগের মূল শক্তি এমন মন্তব্য করেছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও ঢাকা-৫ আসনের এমপি আলহাজ হাবিবুর রহমান মোল্লা।

বৃহস্পতিবার বিকালে যাত্রাবাড়ি কাঠেরপুল এলাকায় ‘নির্বাচনী গণসংযোগ ও সরকারের উন্নয়ন তুলে ধরে প্রচারণা সভা’ তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মশিউর রহমান মোল্লা।

হাবিবুর রহমান মোল্লা বলেন, ঢাকা-৫ নির্বাচনী এলাকায় প্রতিটি ঘরের মানুষকে আমি চিনি। ঘরে ঘরে গিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী তৈরি করেছি। কারণ আওয়ামী লীগ যখনই ক্ষমতায় আসে, তখনই দেশের মানুষ ভালো থাকে-শান্তিতে থাকে। তাই আসুন আমরা নৌকার জন্য কাজ করি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করি। আবারো নৌকার বিজয় নিশ্চিত করি।
ঢাকা-৫ নির্বাচনী এলাকার নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে হাবিবুর রহমান মোল্লা বলেন, আপনি-আমি ও আমরা সবাই নৌকার সৈনিক। প্রধানমন্ত্রী দারিদ্র্যমুক্ত-ক্ষুধামুক্ত দেশ গড়েছেন। ধাপে ধাপে আমরা অনেক দূর এগিয়ে গিয়েছি। আজকে বিশ্বের দরবারে খুদা-দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ হিসেবে আমরা পরিচিতি পেয়েছি। উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমাদের নিয়ে বিশ্ববাসি গর্ববোধ করে। আমাদের প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনাকে উন্নয়নে-অর্জনে বিশ্বের রোল মডেল হিসেবে পরিচিত পেয়েছেন। আগামীতে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলে মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে পরিচিতি লাভ করবে বাংলাদেশ।

তিনি বলেন, নেতাকর্মীদের অনেকেই আমাকে মোল্লা ভাই বলে ডাকেন। আমি শয়তান নই, আমি একজন মানুষ। ভুলক্রটি থাকতেই পারে। এ জন্য আপনারা আমাকে ক্ষমার সৃষ্টিতে দেখবেন। আসুন দেশের জন্য সবাই একসাথে কাজ করি, নৌকার বিজয় নিশ্চিত করি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন মাতুয়াইল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম ফজলুল হক খান, বৃহত্তর ডেমরা থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি কৌশিক আহমেদ জসিম, সাধারণ সম্পাদক রায়হান জামিল রিপন, বাংলাদেশ দলিল লেখক সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন খান, আওয়ামী লীগ নেতা হানিফ তালুকদার, এনামুল ইসলাম এনাম, মাতুয়াইল ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নুরুল আমিন নীরু, ৫০নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি সায়েম খন্দকার, যাত্রাবাড়ি থানা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক বাচ্চু খন্দকার ও মাতুয়াইল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সোহেল খানসহ আওয়ামী লীগ যুবলীগ, সেচ্ছা সেবকলীগ কৃষকলীগ ও ছাত্রলীগের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ।