Skip to main content

যে কোন মন্দের জন্য প্রস্তুত : কাদের

জিয়াউদ্দিন রাজু : জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি আসবে আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের । তিনি বলেছেন, আমরা ভাল কিছুর আশা করে আছি। আবার যে কোন মন্দের জন্য প্রস্তুত আছি।গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আওয়ামী লীগের সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকমÐলীর সভা শেষে সাংবাদিকদের তিনি একথা বলেন। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশীদেরকে নির্বাচন কমিশনের আচরণ বধি মেনে সকল তৎপরতা, গণসংযোগ ও সভা, সমাবেশ করার নির্দেশ দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। তিনি বলেন, সংলাপের মধ্য দিয়ে যে অসাধারণ কাজ করেছেন তা বাংলাদেশের ইতিহাসে মাইলফলক। জননেত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা। সংলাপে ছোটখাট দলকেও বাদ দেয়া হয়নি। শেখ হাসিনা দেশে ও বিদেশে সর্বস্তরে প্রশংসিত হয়েছেন। সংলাপের অর্জন নিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, উই আর হোপিং ফর দ্যা বস্ট, অ্যান্ড প্রিপায়েরিং ফর দ্যা ওরস্ট। কাদের বলেন, যেহেতু তফসিল ঘোষণা হয়েছে, দুই একদিন পর শেখ হাসিনা সংবাদ সন্মেলন করবেন। প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনের সময় পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে। সেতুমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনকালীন সরকারে টেকনোক্রেট থাকছে এটা আমি সুনিশ্চিত করে বলতে পারি। তবে মন্ত্রিসভার সাইজ ছোট না বড় হবে সেটা একান্তই প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। এটা নিয়ে আগাম কিছু বলব না। খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেওয়ায় সংলাপের অগ্রগতি ব্যাহত হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বেগম জিয়া হাসপাতালে থাকলেও তিনি প্রিজনার। তিনি জেলে থাকলে যা, চিকিৎসার জন্য বাইরে থাকলেও একই স্ট্যাটাস। অন্য এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ঐক্যফ্রন্টের রোডমার্চ স্থগিতের সাথে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সন্মেলন স্থগিতের কোন সম্পর্ক নেই। সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, বি এম মোজাম্মেল হক, মেজবাহ উদ্দিন সিরাজ, এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ। সম্পাদনায়: মাহবুব