প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংবাদ সম্মেলন স্থগিত মানে সংলাপ শেষ নয় : ইকবাল সোবহান চৌধুরী

অপু খান : প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী ‘সংলাপ’ প্রসঙ্গে গণমাধ্যমকে জানানোর জন্য সংবাদ সম্মেলন ডেকেছিলেন। প্রেস কনফারেন্স যখন স্থগিত করা হয় তখন বুঝতে হবে সংলাপের কার্যকারিতা পুরোপুরি শেষ হয়নি। বুধবার রাতে আরটিভির টকশোতে তিনি এ কথা বলেন।

ইকবাল সোবহান বলেন, ঐক্যফ্রন্ট যদি মনে করতেন আলোচনার আর সুযোগ নেই তাহলে তো তারা দ্বিতীয় দফায় আলোচনায় যেতেন না। যখন তারা আলোচনায় যাচ্ছেন তখন বুঝতে হবে আলোচনার কিছু বাকি আছে। যদি ক্ষমতাসীন দল দরজা বন্ধ করে দিতো তাহলে দ্বিতীয় দফায় কিন্তু ঐক্যফ্রন্ট আলোচনায় যেতো না। শেখ হাসিনা প্রথম সরকার প্রধান যে, ৭০ টি রাজনৈতিক দলের সাথে সংলাপ করেছেন। শেখ হাসিনা চান দেশেরে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াটি সক্রিয় হোক। নির্বাচনকে নিয়ে যে সংশয় সেটি দূর হোক। প্রধানমন্ত্রী কিন্তু বার বার বলেছেন আমি চাই সকলের অংশগ্রহনের মধ্য দিয়ে নির্বাচন হোক।

তিনি বলেন, সংলাপের পরিবেশ কিন্তু ছিলো না। সংলাপ শুরু হবার আগে বিরোধী দল বলতো যে, প্রধানমন্ত্রী বৈধ নয়। অবৈধ সরকার , এ অশালীন কথা তারা বলতো। আবার সরকারি দল থেকেও প্রতিক্রিয়ায় বলা হতো কাদের সাথে সংলাপ হবে? যারা ২১ আগস্টের হত্যাকারী , ৭৫ এর জাতির জনকের হত্যাকারী তাদের সাথে কোনো সংলাপ নয়। সেই পরিবেশে হঠাৎ প্রধানমন্ত্রী কিন্তু বরফটি গলতে দিলেন।

তিনি জানান, ২০১৪ সালের সাথে যদি ১৯৯৬ সালের তুলনা করেন , দেখবেন আজকের যিনি প্রধানমন্ত্রী তখন তিনি ছিলেন বিরোধী দলীয় নেত্রী। তিনি জনগণকে সাথে নিয়ে ,জনগণকে সম্পৃক্ত করে ,চাপ সৃষ্টি করে অবৈধ নির্বাচনকে বাতিল করতে পেরেছিলেন। তিনি সফল হয়েছিলেন। ২০১৪ সালের নির্বাচন সুষ্ঠ নির্বাচন হয়নি ,গ্রহণ যোগ্য নির্বাচন হয়নি যারা বলেন, তারা কিন্তু জনগণকে সাথে নিয়ে ঐক্যবধ্যভাবে নির্বাচন বাতিল করতে পারেননি।

নির্বাচন কমিশন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা বলেন, নির্বাচন কমিশন একটি স্বাধীন প্রতিষ্ঠান। নির্বাচন কমিশনের দায়িত্ব নির্বাচন করা। আপনি যখন সংলাপে বসেছেন এটা রাজনৈতিক সংলাপ। এর সাথে নির্বাচন কমিশনের কোনো সম্পর্ক নেই।

সূত্র : আরটিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ