Skip to main content

খালেদা জিয়া ফের কারাগারে

মহসীন কবির ও সুজন কৈরি : বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) থেকে ঢাকার নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত বিশেষ আদালতে নেওয়া হয়েছে। খালেদা জিয়াকে বহনকারী গাড়ির নম্বর ঢাকা মেট্রো ই ন ৫০৪০। নাইকো দুর্নীতি মামলার শুনানিতে হাজিরা দিতে বৃহস্পতিবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে নাইকো দুর্নীতির মামলায় তাকে আদালতে হাজির করা হয়। ‌শুনানি শেষে খালেদা জিয়াকে কারাগারে নেওয়া হয়েছে। আগামী ১৪ নভেম্বর বুধবার পর্যন্ত শুনানি মুলতবি করেছেন আদালত। বেলা সোয়া ১১টার পরপরই তাকে বিএসএমএমইউ থেকে কারাগারের দিকে নিয়ে যাওয়ার প্রস্তুতি শুরু হয়। প্রায় আধাঘন্টা পর খালেদা জিয়া কারাভ্যন্তরের আদালতে পৌঁছান। ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহবুবুল ইসলাম জানান, খালেদা জিয়াকে পুরাতন কারাগারে স্থাপিত আদালতে আনা হতে পারে। আনার পর আদালত শেষে কারাগারেই রাখা হবে নাকি হাসপাতালে নেওয়া হবে তার সিদ্ধান্ত হয়নি। এর আগে ৬ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) আনা হয়। বিকাল ৩টা ৪১ মিনিটে বিএসএমএমইউ’র প্রধান ফটকের সামনে পৌঁছান তিনি। খালেদা জিয়ার জন্য আদালতের নির্দেশে পাঁচ সদস্যের মেডিক্যাল টিম গঠন করা হয়েছে। এর সদস্যরা হচ্ছেন কার্ডিওলজির অধ্যাপক সজল কৃষ্ণ ব্যানার্জী, রিউমাটোলজি বিভাগের অধ্যাপক সৈয়দ আতিকুল হক, অর্থোপেডিক বিভাগের অধ্যাপক নকুল কুমার দত্ত, মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক আব্দুল জলিল চৌধুরী, ফিজিক্যাল মেডিসিনের সহযোগী অধ্যাপক বদরুন্নেসা আহমেদ। এর মধ্যে তিনজন খালেদা জিয়ার নিযুক্ত চিকিৎসক, বাকি দুজন সরকার নিযুক্ত নিরপেক্ষ চিকিৎসক। চলতি বছরের ৭ এপ্রিল বেগম খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য কারাগার থেকে বিএসএমএমইউতে আনা হয়েছিল। তখন তার শরীরের কয়েকটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা পুনরায় জেলাখানায় পাঠানো হয়। উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়া এখন কারাগারে বন্দি। ৫ বছরের দণ্ড নিয়ে তিনি নাজিমউদ্দিন রোডের কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন।

অন্যান্য সংবাদ