প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংলাপের অজুহাত দিয়ে তফসিল পেছানো যাবে না : জাপা

ইউসুফ আলী বাচ্চু : একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জাতীয় পার্টির (জাপা) সঙ্গে বৈঠকে বসেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনের সম্মেলন কক্ষে আজ বেলা সোয়া ১১টায় বৈঠকটি শুরু হয়।

নির্বাচন কমিশনের সাথে বৈঠক যে আলোচনা হয়েছে তার একটি সারসংক্ষেপ উল্লেখ করে রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ ৮ নভেম্বরে করা হোক। সংলাপের অজুহাত দিয়ে তফসিল ঘোষণার তারিখ পেছানোর কোনো অজুহাত থাকতে পারবে না। নির্বাচন মনোনয়ন পূর্বের তুলনায় সহজ করা হোক।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃতে নির্বাচন কমিশনের সাথে বৈঠক শেষে দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার সংবাদিকদের জানান, আলোচনা ফলোপ্রসু হয়েছে এবং তারা একমত পোষণ করেছেন।

নির্বাচনের কালো টাকার প্রভাবমুক্ত ব্যবস্থা করতে হবে। নির্বাচনের সময় যেন কোনোভাবেই অস্রের ব্যবহার না হতে পারে তার জন্য কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। নির্বাচনী প্রচারকালে সংঘাত বা সহিংসতা এড়ানোর জন্য কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

মটরসাইকেল বা গাড়ি বহরের জন্য সীমিত রাখার ব্যবস্থা নিতে হবে। পোস্টার ব্যবহারের ক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে একক পোস্টার দেবার বিষয়ে বিবেচনা করতে পারেন নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনকালে সেনাবাহিনী স্টাইকিং ফোর্স হিসেবে রাখতে হবে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বে চার নির্বাচন কমিশনার, ইসি সচিবসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অন্যদিকে, জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে রয়েছেন দলের মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, এম এ সাত্তার, জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু, প্রফেসর দেলোয়ার হোসেন খান, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সাজেদুর রহমান টেপা, মুজিবুল হক চুন্নু, সুনীল শুভ রায়, এস এম ফয়সল চিশতী, আব্দুস সবুর আসুদ, মশিউর রহমান রাঙা, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, জাতীয় ইসলামী জোটের চেয়ারম্যান আবু নাসের ওয়াহেদ ফারুক এবং বিএনএ’র চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলী মনি।

এর আগে সোমবার জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট, মঙ্গলবার যুক্তফ্রন্টের সঙ্গে বৈঠক করে ইসি। এ ছাড়া আজ বিকেল ৪টায় ক্ষমতাসীন দল বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সঙ্গে বসবে কমিশন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ