প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রেমের সম্পর্ক ভেঙ্গে গেলো ইতালির উপ-প্রধানমন্ত্রী স্যালভিনির

মাহাদী আহমেদ : প্রেমের সম্পর্ক ভেঙ্গে গেছে ইতালির উপ-প্রধানমন্ত্রী মাত্তেও স্যালভিনির। সোমবার সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে একটি ছবি প্রকাশের মাধ্যমে স্যালভিনির বান্ধুবী এলিসা ইসোয়ারদি তাদের ৩ বছরের সম্পর্কের আকস্মিক ইতি টানার সিদ্ধান্তের কথা জানান।

স্যালভিনির বান্ধুবি ৩৫ বছর বয়সী এলিসা ইতালির একজন খ্যাতনামা মডেল ও টিভি শো ‘রেডি স্টেডি কুক’-এর ইতালিয় সংস্করণের উপস্থাপিকা। ইন্সটাগ্রামে প্রকাশিত ছবিটির ক্যাপশনে এলিসা লেখেন, ‘আমরা একে অপরকে যা দিয়েছি তা আমি মিস করবো না, আমি মিস করবো, যা আমরা একে অপরকে দিতে পারতাম। আমি আমাদের সত্যিকারের ভালোবাসার প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। ধন্যবাদ, মাত্তেও।’

মাত্তেও স্যালভিনি বর্তমানে পশ্চিম আফ্রিকার দেশসমূহ থেকে লিবিয়া হয়ে শরণার্থীদের ইউরোপে প্রবেশের প্রচেষ্টা প্রসঙ্গে আলোচনা করতে ঘানায় রাষ্ট্রিয় সফরে রয়েছেন। প্রেমের সম্পর্কে তার বান্ধুবীর আকস্মিক ইতি টানার ঘোষণার প্রেক্ষিতে নিজের ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্টে তিনি তার একটি ছবি প্রকাশ করেন। ছবিটিতে দেখা যায় তিনি দু’হাত ছড়িয়ে দাঁড়িয়ে আছেন। ছবিটির ক্যাপশনে তিনি লিখেন, ‘আমি আমার ব্যক্তিগত জীবনকে কখনও জনসম্মুখে উন্মুক্ত করিনি এবং তা এখনও করবো না। আমি ভালোবেসেছি, আমি ক্ষমা করেছি। অবশ্যই আমি অনেক সময় ভুল করেছি, কিন্তু আমি আমার ভালোবাসার প্রতি বিশ্বাস রেখেছি। দুঃখ! কেউ অন্যকিছুকে বেশি প্রাধান্য দিয়েছে।’

স্যালভিনি ও তার বান্ধুবী এলিসার সম্পর্ক ভেঙ্গে যাওয়ার মূল কারণ সম্পর্কে কেউ এখনও পরিষ্কার করে কিছু জানায়নি।

স্যালভিনি রাজনীতির পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমেও বেশ সক্রিয়। তিনি প্রায়শই ফেসবুক-টুইটারের মতো সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমসমূহে বিভিন্ন বিষয় ও নীতি নিয়ে আলোচনা, সমালোচনা ও মন্তব্য করে থাকেন। টুইটারে তার ৯ লাখেরও বেশি ও ফেসবুকে ৩০ লাখেরও বেশি অনুসারী রয়েছে।

গত শুক্রবার পরিচালিত একটি জরিপের ফলাফলে দেখা যায়, অধিকাংশ ইতালিয় নাগরিকই স্যালভিনিকে বর্তমান সরকারের সত্যিকারের প্রধান হিসেবে দেখে থাকে। জরিপে অংশগ্রহনকারীদের প্রতি ৬ জনের মাত্র ১ জন মনে করেন প্রধানমন্ত্রী গিউসেপ্পে কন্তে আসলে সত্যিকারের প্রধান।

তিনি অক্ল্যান্ত প্রচেষ্টার মাধ্যমে তার ক্ষমতাসীন দল ‘দ্যা অ্যান্টি ইমিগ্রেশন লীগ’-এর প্রতি জনগণের সমর্থণ ১৭ থেকে ৩৪ শতাংশে বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। – ইয়ন নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ