প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুটি শহরে ভাগ হতে পারে অ্যামাজনের নতুন সদর দপ্তর

নূর মাজিদ : সিয়াটলে অবস্থিত অ্যামাজনের সদর দপ্তর ২০১০ সালে ৫ হাজার কর্মী নিয়ে যাত্রা শুরু করলেও এখন সেখানে অনলাইনে ক্রয়-বিক্রয় ভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটির কর্মী সংখ্যা ৪৫ হাজারে উন্নীত হয়েছে। এই বিপুল সংখ্যক কর্মী নিয়ে সিয়াটলে সদর দপ্তর পরিচালনার ক্ষেত্রে নানাবিধ সমস্যায় পড়েছে কো¤পানিটি। এছাড়াও শহরটির নগর কতৃপক্ষও এতে নতুন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েছেন। এরই ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানটির পরিকল্পিত নতুন সদর দপ্তর দুটি শহরের মাঝে ভাগ করা হতে পারে বলে জানিয়েছে, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল। গত সোমবার মার্কিন দৈনিকটি জানায়, নতুন সদর দপ্তর দুইভাগে ভাগ করার পর কর্মী সংখ্যা বৃদ্ধি করারও সুযোগ পাবে অনলাইনে ক্রয়-বিক্রয় ভিত্তিক কো¤পানিটি। ফলে দুটি সদর দপ্তরের প্রতিটির ক্যা¤পাসে ২৫ হাজার করে কর্মী কাজ করতে পারবেন। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই অ্যামাজন তাদের দ্বিতীয় সদর দপ্তর কোথায় স্থাপন করা হবে সেই সংক্রান্ত ঘোষণা দিতে চলেছে।

২০১৭ সালেই ৫০ হাজার কর্মী তাদের সদর দপ্তরে কাজ করবেন এমন পরিকল্পনা করেছিল অ্যামাজন। প্রতিষ্ঠানটির দ্বিতীয় সদর দপ্তর দুটি ভিন্ন শহরে স্থাপিত হলে কর্মী ব্যবস্থাপনার ক্ষেত্রে তারা বাড়তি সুবিধাও পাবে। তবে ইতোপূর্বে কোন একটি নির্দিষ্ট শহরে ৫শ কোটি ডলার ব্যয়ে নতুন কর্পোরেট ক্যা¤পাস নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিল কো¤পানিটি। যার নির্মাণকাজ ২০১৯ সাল থেকেই শুরুর পরিকল্পনা করা হয়। সিয়াটল টাইমস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ