Skip to main content

খাসোগজির সন্তানদের সাক্ষাৎকার- মদিনায় পিতার দাফন চান তারা

নূর মাজিদ : গত ২রা অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বলস্থ সৌদি কূটনৈতিক মিশনে হত্যাকান্ডের শিকার সাংবাদিক জামাল খাসোগজির দেহাবশেষ সৌদি আরবে ফিরিয়ে এনে মদিনায় দাফন করার দাবি জানিয়েছেন তার দুই পুত্র- সালাহ এবং আব্দুল্লাহ খাসোগজি। গতকাল সোমবার মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন-এর সাংবাদিক নিক রবার্টসনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তারা এই দাবি জানিয়েছেন। ভিন্নমতালম্বি সৌদি সাংবাদিক জামাল খাসোগজির হত্যার পর কোন বিদেশী গণমাধ্যমকে দেয়া এটি তাদের প্রথম সাক্ষাৎকার। সেখানে অত্যন্ত আবেগ এবং ক্ষোভের সঙ্গেই তারা এমন দাবি করেছেন। এসময় খাসোগজি পুত্রদ্বয় বলেন, ‘আমাদের পিতা ছিলেন একজন দয়ালু ও উদার মনের মানুষ। তিনি সৌদি রাজতন্ত্রের প্রতি গভীর আস্থা রাখতেন। কিভাবে আমাদের পিতাকে হত্যা করা হলো সেই বিষয়ে আমরা নিজেদের অনুসন্ধান অব্যাহত রাখব।’ নিজেদের পিতার এমন আকস্মিক অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে তারা বলেন, এখন আমাদের একটাই ইচ্ছা তার দেহাবশেষ সৌদি আরবে ফিরিয়ে এনে তা মদিনার জান্নাতুল বাকি কবরস্থানে দাফন করা। খাসোগজির বড় ছেলে ৩৫ বছর বয়স্ক সালাহ খাসোগজি বলেন, ‘আমরা চাই মদিনায় আমাদের পরিবারের বাকি সদস্যদের সঙ্গেই তাকে দাফন করা হোক। এটি অত্যন্ত ইসলামসম্মত একটি দাবি। যা সাধারণ মানবাধিকারের অংশ।’ এদিকে খাসোগজি পুত্রদের এমন সাক্ষাৎকারে সৌদি সরকার এবং বিশেষ করে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ওপর জামাল খাসোগজির দেহাবশেষ সন্ধান দেওয়ার চাপ বৃদ্ধি পাবে বলেই ধারণা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যেই, তুর্কি তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, হত্যার পর জামালের লাশ টুকরো টুকরো করে কেটে এসিডে গলিয়ে ফেলেছে সৌদি গুপ্তঘাতকেরা। ফলে কখনোই তার দেহাবশেষ খুঁজে পাওয়া সম্ভব হবেনা। সিএনএন

অন্যান্য সংবাদ