Skip to main content

থামানোই যাচ্ছে না পাকিস্তানকে

স্পোর্টস ডেস্ক : টি-টোয়েন্টিতে যেন অপ্রতিরোধ্য পাকিস্তান। টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে সাত নম্বরে এবং ওয়ানডেতে তাদের অবস্থান পঞ্চম স্থানে। কিন্তু ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে এক নম্বর স্থানটা যে অঘোষিতভাবে নিজেদের করে রেখেছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। ২০১৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত কোনো টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারেনি সরফরাজরা। সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিন ম্যাচের সিরিজ দুটিতেই হোয়াইটওয়াশ হয়েছে সফরকারীরা। গত রোববার (২৮ অক্টোবর) অস্ট্রেলিয়াকে টি-টোয়েন্টিতে হোয়াইটওয়াশ করার পর নিউজিল্যান্ডও ধরাশায়ী হলো পাকিস্তানের কাছে। বাবর আজমের রেকর্ড রানে গতকাল দুবাইয়ে শেষ টি-টোয়েন্টিতে নিউজিল্যান্ডকে ৪৭ রানে সহজেই পরাজিত করে পাকিস্তান ৩-০ ব্যবধানে তিন ম্যাচের সিরিজ জিতে নিয়েছে। টি-টোয়েন্টির র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষ ব্যাটসম্যান বাবর ৫৮ বলে সাতটি বাউন্ডারি ও দুটি ওভার বাউন্ডারির সহায়তায় ৭৯ রান করে ক্রিকেটের ছোট ফরম্যাটে দ্রুততম ব্যাটসম্যান হিসেবে ১০০০ রানের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন। শুধু তাই নয়, ১৯ ম্যাচে ২৮ উইকেট নিয়ে টি-টোয়েন্টিতে এ বছরের এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী পাকিস্তানের শাদাব খান। ২০১৬ সালের পর থেকে ১১টি টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলেছে পাকিস্তান দল। সেখানে সবকটি সিরিজই জয় করে মাঠ ছাড়ে মিকি আর্থারের শিষ্যরা। আর শেষ ৫০টি ম্যাচের মধ্যে পাকিস্তান হেরেছে মাত্র ১৪ বার। আর টি-টোয়েন্টি চালু হওয়ার পর পাকিস্তান মোট খেলেছে ১৩৯টি ম্যাচ। যার মধ্যে জয় পেয়েছে ৯০টি ম্যাচে । আর হারতে হয়েছে ৪৯টি ম্যাচে। হার-জিতের শতকরা হার প্রায় ৬৫ ভাগ! আরব আমিরাত সফরে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ২ রানে, দ্বিতীয় ম্যাচে ৬ উইকেটে এবং শেষ ম্যাচে ৪৭ রানে জিতেছিল স্বাগতিক পাকিস্তান। আগামীকাল বুধবার থেকে আবধাবিতে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু করতে যাচ্ছে দু’দল।