প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘আঘাতে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ছেন বিপাশা কবির’

মহিব আল হাসান: ঢাকাই ছাবির আইটেম কন্যা খ্যাত অভিনেত্রী বিপাশা কবির। তিনি অস্ট্রেলিয়ায় ‘আঘাত’ শিরোনামের একটি ওয়েব সিরিজের চিত্রায়ণ নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন। এটি পরিচালনা করছেন জায়েদ রেজওয়ান। কাজের ফাঁকে কথা হয় তার সাথে।

সিনেমার কাজের পাশাপাশি ওয়েব সিরিজে অভিনয় বিষয়টি কী ভাবে দেখছেন?

অভিনয়ের ব্যপারটি একই। তবে বড় পর্দা আর ছোট পর্দায় অভিনয়ের বিষয়টি একদম আলাদা। বড় পর্দায় অভিনয় করাটা একটা বড় চ্যালেঞ্জ। অভিনয় শিল্পীর জন্য মুখ্য বিষয় হচ্ছে অভিনয় করাটা। একজন শিল্পীর জন্য অভিনয় করাটা তার প্রাপ্তি। এজন্য অভিনয় ছোট পর্দা হোক কিংবা বড় পর্দা হোক সব পর্দায় সমান অভিনয় শিল্পীদের অভিনয়ের জায়গা থাকে।

‘আঘাত’ সম্পর্কে জানতে চাই…
এই ওয়েব সিরিজটির গল্প অসাধারণ। এটির কাহিনী গড়ে ওঠেছে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড নিয়ে। দর্শকরা এই সিরিজে গান, রোমান্স ম্যাসেজ সব কিছুই পাবেন। গল্পের প্রয়োজনে অস্ট্রেলিয়ায় কাজ করা হচ্ছে। আমার বিশ্বাস, দর্শক একটা পর্ব দেখলে আরেকটার জন্য অপেক্ষা করবে।

আপনার চরিত্রটি নিয়ে বলুন॥

গল্পে আমার চরিত্রের নাম জুলিয়া। আমি একজন ধার্মিক নারীর ভূমিকায় অভিনয় করছি। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ছি। বাব-মা কে হারিয়ে চাচার বাড়িতে থাকতে হচ্ছে। এটুকুই আপাতত বললাম বাকিটা দর্শকদের জন্য সাসপেন্স থাকল।

ওয়েব সিরিজে যৌনতা প্রকাশ পায়। আপনি কী একমত?
আসলে গল্পের প্রয়োজনে কাজ করতে হয়। এটার সাথে আমি একমত না। আমি গল্প নির্ভর ওয়েব সিরিজে কাজ করছি। ওয়েব সিরিজ মানে যে যৌনতা তা একদম ঠিক নয়। তবে এই গল্পে কোনও যৌনতার ব্যপার নেই। এ পর্যন্ত আমি অনেক ওয়েব সিরিজ দেখেছি সব একই রকম। কিন্তু আমাদের গল্পের ধারাটি ভিন্ন।

ওয়েব সিরিজে আমি এই প্রথমবারে কাজ করছি। জায়েদ রেজওয়ান ভাইয়ার পরিচালনায় কাজ করতে পেরে ভালোই লাগছে। এ ওয়েব সিরিজে ভিন্নভাবে আমাকে উপস্থাপন করা হয়েছে। ধার্মিক একটা মেয়ে চরিত্রে অভিনয় করছি। যা আমাকে আমার দর্শক আগে কখনো দেখেনি। আশা করি দর্শক ভিন্নতা পাবে।

অন্যান্য ব্যাস্ততা কী নিয়ে?
হাতে বেশকিছু সিনেমার কাজ আছে। এখান থেকে ফিরে গিয়ে নতুন দুটি ছবির কাজ একটি হলো পরিচালক সাইমন তারিকের ‘রোড নাম্বার ৭’ এবং রশিদ পলাশের ‘পদ্মাপুরণ’।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত