প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২২ কোটি বই ছাপার কাজ শেষ
নভেম্বরের মধ্যেই সব বই ছাপার কাজ শেষ হবে: এনসিটিবির চেয়ারম্যান

তরিকুল ইসলাম সুমন : বছরের প্রথম দিন প্রায় ৩৬ কোটি বই শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেওয়ার জন্য কাজ করছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি)। আগামী ১৪ ডিসেম্বরের আগেই সব বই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সকল বই পৌঁছে যাবে। ইতোমধ্যে প্রায় ২২ কোটি বই দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পৌঁছে গেছে বলে জানিয়েছেন এনসিটিবির চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ন চন্দ্র সাহা।

সূত্র জানায়, মানসম্মত বই ছাপতে এবার কঠোর অবস্থানে এনসিটিবি। সংস্থার চেয়ারম্যান, সদস্য ও অন্যান্য কর্মকর্তারা নিয়মিত সারাদেশের ছাপাখানা পরিদর্শন করছেন। ইতোমধ্যে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানের বই ফেরত দিয়ে পূণরায় তা ছাপাতে বাধ্য করা হয়েছে।

এনসিটিবির চেয়ারম্যান এই প্রতিবদেককে আরো জানান, এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে যে তথ্য এসেছে পাঠ্যপুস্তক মুদ্রণের অবস্থা ভালো। বইয়ের মানও ভালো হচ্ছে। উপজেলা পর্যায়েও ছাপা বইয়ের মধ্য থেকে ২২ কোটির বেশি বই সরবরাহ করেছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। তিনি আরো বলেন, এ মাসের মধ্যেই প্রায় সকল বই ছাপার কাজ শেষ হবে। যদি কোনো বইয়ে কোনো ত্রæটি বিচ্যুতি থাকে তা আমরা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে বাধ্য করবো ঠিক করে দিতে। তা না হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

২০১৯ শিক্ষাবর্ষের সারাদেশের চার কোটি ২৬ লাখ ১৯ হাজার ৮৬৫ জন শিক্ষার্থীর জন্য ৩৫ কোটি ২২ লাখ কপি বিনামূল্যের পাঠ্যবই ছাপা হচ্ছে পাঠ্যবই। এর মধ্যে প্রাক-প্রাথমিক স্তরের বই ৬৮ লাখ ৫৬ হাজার ২০ কপি। প্রাথমিক স্তরের ৯ কোটি ৮৮ লাখ ৮২ হাজার ৮৯৯ কপি, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর ভাষার বই দুই লাখ ৭৬ হাজার ৭৮৪ কপি, ইবতেদায়ির দুই কোটি ২৫ লাখ ৩১ হাজার ২৮৩ কপি এবং দাখিলের তিন কোটি ৭৯ লাখ ৫৮ হাজার ৫৩৪ কপি ছাপা হচ্ছে। মাধ্যমিক (বাংলা ভার্সন) স্তরের ১৮ কোটি ৫৩ হাজার ১২২ কপি এবং একই স্তরের ইংরেজি ভার্সনের ১২ লাখ ৪৭ হাজার ৮২৬ কপি বই ছাপা হচ্ছে।

এছাড়া কারিগরি শিক্ষা স্তরের ১২ লাখ ৩৫ হাজার ৯৪৮ কপি, এসএসসি ভোকেশনাল স্তরের এক লাখ ৪৩ হাজার ৮৭৫ কপি, ব্রেইল পাঠ্যপুস্তক পাঁচ হাজার ৮৫৭ কপি এবং সম্পূরক কৃষি (৬ষ্ঠ-৯ম) স্তরের এক লাখ ২৪ হাজার ২৬১ কপি বই ছাপা হচ্ছে।

এসব বই ছাপাতে দেশি-বিদেশি প্রায় তিন’শ ছাপাখানার (প্রিন্টার্স) সঙ্গে চুক্তি করে কার্যাদেশ দিয়েছে এনসিটিবি। এর মধ্যে মাধ্যমিক (বাংলা ও ইংরেজি ভার্সন) এবং এসএসসি ভোকেশনাল স্তরের পাঠ্যপুস্তক মুদ্রণ, বাঁধাই ও সরবরাহ করতে কাগজ ছাড়া ৩৪০টি লটে কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছে।

আর মাধ্যমিক বাংলা ও ইংরেজি ভার্সন, ইবতেদায়ি, দাখিল, এসএসসি ও দাখিল ভোকেশনাল এবং কারিগরি (ট্রেড বই) স্তরের বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক মুদ্রণ, বাঁধাই ও সরবরাহের জন্য কাগজসহ ৩২০টি লটে কার্যাদেশ দেওয়া হয়েছে। ছাপাখানাগুলো পুরোদমে বইয়ের কাজ করছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত