প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভুয়া ডিবি সেজে ডাকাতিকালে অস্ত্রসহ গ্রেফতার ৭

সুজন কৈরী: রাজধানীর উত্তরায় ভুয়া ডিবি পুলিশ সেজে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে ৭ জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি)। গ্রেফতারকৃতরা হলো- মো. আরিফ হোসেন (৩৪), মো. আব্দুল আলী ফকির ওরফে লালা (৪৮), মো. সানোয়ার হোসেন ওরফে সজিব (২৭), মো. স্বপন মিয়া (২৮), মো. অপু (২৮), মো. সবুজ হোসেন (২৮) ও মো. সবুজ মৃধা ওরফে রাহাত (২৬)।

শনিবার দিবাগত রাত পৌনে ৩টার দিকে উত্তরার ১১নম্বর সেক্টরের গরীবে নেওয়াজ এভিনিউ এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে ডিবি-উত্তর বিভাগের গাড়ি চুরি প্রতিরোধ ও উদ্ধার টিম। তাদের কাছ থেকে ডাকাতি কাজে ব্যবহৃত ১টি মাইক্রোবাস, ১টি পিস্তল-গুলি, হ্যান্ডকাফ ও ওয়্যারলেস সেট উদ্ধার করা হয়।

ডিবি সূত্রে জানা যায়, এই গ্রুপের নেতৃত্ব দিতেন আরিফ হোসেন। তারা আরিফের নেতৃত্বে মাইক্রোবাস ব্যবহার করে বিভিন্ন সময় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে যাত্রী উঠিয়ে নির্জন স্থানে নিয়ে যেতো এবং ডিবি পরিচয়ে অস্ত্র-গুলি, ওয়্যারলেস সেট ও হ্যান্ডকাফের মাধ্যমে ভয়ভীতি দেখিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে ডাকাতি/ছিনতাই করতো।

সূত্র আরো জানায়, তারা প্রথমে ব্যবসায়ী অথবা সম্ভ্রান্ত কোনো যাত্রীকে টার্গেট করে। কোনো ব্যক্তি ব্যাংক বা বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করলে চক্রের একজন ওই ব্যক্তিকে নজরদারিতে রাখে। অপর সদস্যরা কৌশলে তাকে মাইক্রোবাসে তোলে। পরে নির্জন কোনো জায়গায় তাকে নিয়ে যায়। এরপর যাত্রীর চোখ/মুখ গামছা দিয়ে বেঁধে ফেলে। তারপর শারীরিক নির্যাতন করে সঙ্গে থাকা টাকা, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ডাকাতি করে নিয়ে যায়। সাধারণত রাজধানীরসহ আশপাশের এলাকার ব্যাংক ও বুথগুলো তাদের টার্গেটে থাকে। যাতে তারা অপরাধ করে পালিয়ে যাবার সুযোগ পায়।

ডিবি পুলিশ জানায়, অভিযানকালে গ্রেফতার আরিফ পিস্তল দিয়ে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করার চেষ্টাকালে দুইজন পুলিশ সদস্য আহত হয়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়লে আরিফ ও সানোয়ার আহত হয়। পরে তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। আর আহত পুলিশ সদস্যদের রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে উত্তরা পশ্চিম থানায় পৃথক দুটি মামলা করা হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ