প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কুমিল্লায় নেশাগ্রস্ত ছেলের লাঠির আঘাতে পিতার মৃত্যু

মাহফুজ নান্টু, কুমিল্লা : বহুদিন ধরেই মাদকাসক্ত ছেলে মাদকের টাকার জন্য পরিবারের উপর অত্যাচার করলেও মান-সম্মানে ভয়ে কিছুই বলেনি পরিবারের অন্য সদস্যরা। কিন্তু পরিবারের সদস্যদের এমন চুপ থাকাই কাল হয়ে দাড়ালো। মাদকাসক্ত ফরহাদ হোসেন স্বাস্থ্য সহকারী হিসেবে চাকুরী করছেন। তবে আজ নেশাগ্রস্থ হয়ে হঠাৎ ঝগড়া শুরু করলো। জগড়ার এক পর্যায়ে নিজের বাবার মাথায় লাটি দিয়ে সজোরে আঘাত করলো। মাটিয়ে লুটিয়ে পড়ে বাবা। সন্তানের লাঠির আঘাতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় হতভাগ্য বাবা মাইনু মিয়া(৬২)’র।

স্থানীয়রা এমন নির্মম হত্যাকারী ফরহাদ হোসেনকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করা হয়। রোববার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার উজিরপুর ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আবদুস সাত্তার প্রকাশ মাইনু মিয়া (৬২) ওই একই এলাকার বাসিন্দা।

এ ব্যাপারে চৌদ্দগ্রাম থানার পরিদর্শক তদন্ত শুভ রঞ্জন চাকমা বলেন, পারিবারিক বিরোধ নিয়ে কথা কাটাকাটির জের ধরে রোববার সকালে নেশাগ্রস্ত ছেলে স্বাস্থ্য’ সহকারী ফরহাদ হোসেন তার পিতা আবদুস সাত্তার মাইনু মিয়ার মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই মাইনু মিয়ার মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা ঘাতক ছেলে ফরহাদ হোসেনকে আটকে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে এবং ঘাতক ছেলে ফরহাদকে আটক করে।

ওই পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, এ ব্যাপারে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে ফরহাদ হোসেন মাদকাসক্ত হয়ে পরিবারের সদস্যদের উপর অত্যাচার করছিল।