প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দশ দেশকে নিয়ে ওয়ার্ল্ড আরচ্যারির ট্রেনিং বাংলাদেশে

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশে আরচ্যারীর প্রচলন খুব বেশি দিনের না হলেও আন্তর্জাতিক আসরে বেশ কয়েকটি সাফল্য এসেছে এ ডিসিপ্লিনে। মাঠের পারফরমেন্সের পাশাপাশি সাংগঠনিক ও অবকাঠামো ক্ষেত্রেও উন্নতি হয়েছে আরচ্যারীতে। এরই ধারাবাহিকতায় প্রথমবারের মত টঙ্গির আহসান উল্লাহ মাস্টার আরচ্যারী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ওয়ার্ল্ড আরচ্যারি এশিয়ার (ডব্লিউ এএ) জয়েন্ট ট্রেনিং প্রোগামের আয়োজন করা হয়েছে। আগামীকাল সকালে এর উদ্ধোধন করবেন স্থানীয় সাংসদ এবং যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যান জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

আজ রোববার বাংলাদেশ অলিম্পিক এসোসিয়েশনের ডাচ বাংলা অডিটরিয়ামে সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ওয়ার্ল্ড আরচারি এশিয়ার প্রথম সহ-সভাপতি ও বাংলাদেশ আরচারি ফেডারেশন সাধারণ সম্পাদক কাজী রাজীবউদ্দিন আহমেদ চপল। এ সময় ওয়ার্ল্ড আরচারি এশিয়ার সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর উম সাং হো এবং আরচ্যারী ফেডারেশনের সহ সভাপতি মাহফুজরি রহমান সিদ্দিকী, কোচ মার্টিন ফ্রেডরিক ও মিডিয়া কমিটির আহবায়ক রফিকুল ইসলাম টিপু উপস্থিত ছিলেন। এ প্রোগামের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ ভবিষ্যতে আরও ট্রেনিং কোর্স এবং আন্তর্জাতিক বিভিন্ন আসর আয়োজনের সুযোগ পাবে।

দশ দেশের কোচও খেলোযাড়সহ মোট ৪৬ জনকে নিয়ে শুরু হচ্ছে এই ডব্লুএএ জয়েন্ট ট্রেনিং প্রোগ্রাম। ট্রেনিং কোর্সে ইরাকের ছয়, কিরগিজস্তানের দু’জন, সিরিয়া, তাজিকিস্তান ও তুর্কমেনিস্তানের তিনজন করে, নেপালের পাঁচজন, ভারত ও আরব আমিরাতের ছয়জন করে,পাকিস্তানের একজন এবং স্বাগতিক বাংলাদেশের ১১জন (নয়জন আরচ্যার ও দুজন কোচ) অংশ নিচ্ছেন।

বাংলাদেশ আরচ্যারী ফেডারেশনের আয়োজনে এ প্রোগামে সহায়তা প্রদান করছে ওয়াল্ড আরচ্যারী এশিয়া এবং মৌসুমী ইন্ডাস্ট্রিজ লি:। কোর্স পরিচালনা করবেন জাতীয় আরচ্যারী দলের প্রধান কোচ মার্টিন ফ্রেডরিক। তাকে সহায়তা দেবেন স্থানীয় কোচ মোহাম্মদ জিয়াউল হক ও মোহাম্মদ হাসান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ