প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বহুতল ভবন দরকার নেই, হলগুলো আধুনিকায়ন করে দেন: শিল্পী চক্রবতী

মহিব আল হাসান : বাংলাদেশের সিনেমার বর্তমান অবস্থার কথা সবাই জানে। দেশের সিনেমা শিল্প এখন বেকার শিল্প হয়ে যাচ্ছে! যখন চলচ্চিত্রের জন্য হলগুলো ডিজিটাল করতে চলচ্চিত্র পরিবারের আবেদন প্রধানমন্ত্রীর কাছে, ঠিক তখন বিএফডিসিতে বহুতল ভবন নির্মাণের জন্য সরকার বাজেট পেশ করেন। কিন্তু আমাদের এই মুমূর্ষ সময়ে সিনেমা হলগুলোকে আধুনিকায়ন করা অতি জরুরী। চলচ্চিত্র পরিবার থেকে চাওয়া হলো সিনেমা হলের আধুনিকায়ন আর সরকার আমাদের দিচ্ছেন বহুতল ভবন নির্মাণ করে। আমাদের বহুতল ভবন দরকার নেই হলগুলোকে আধুনিকায়ন করা দরকার। কথাগুলো বলছিলেন চলচ্চিত্র নির্মাতা শিল্পী চক্রবতী।

হল মালিকরা হলের আধুনিকায়ন করবে, সরকার কেনো করে দেবে? এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘আসলে আমাদের দেশের সিনেমার যে অবস্থা তাতে করে হল মালিকরা সাহস নিতে পারছে না। এরচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে তারা হলের প্রযেক্টর পাচ্ছে অন্য একটি প্রতিষ্ঠানের, এ কারণে তারা এই দিকে মনোযোগ দিয়েছেন। নিজেরা আর উদ্যোগ নিচ্ছেন না। এ কারণে সরকারের কাছে চাওয়া এফডিসিতে সারভার বসিয়ে হলগুলো পরিচালনা করা।

শিল্পী চক্রবতী যৌথ প্রযোজনার ছবি নিয়ে বলেন, সরকার যৌথ প্রযোজনার নীতিমালা করার পর যতগুলো যৌথ প্রযোজনার সিনেমা নির্মাণ হয়েছে তা সঠিক পন্থায় হয়নি। সবগুলো প্রতারণা হয়েছে। তবে যৌথ প্রযোজনায় ছবি হোক নিয়ম মেনে।

সিনেমার বর্তমান সময়ের সংকট বেশ ভয়াবহ। নেই বাবা-মায়ের চরিত্র করার মতো শিল্পী। নায়ক-নায়িকার অভাব । দেশে অ্যাকশন সিনেমার নায়কের অভাব। বিশেষ করে নতুন করে সিনেমার হল তৈরি করাসহ সরকারের বেশকিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করলে সিনেমার উন্নয়ন হবে বলে মনে করেন এই নির্মাতা।

এখনও অনেক নতুন নতুন নায়ক-নায়িকা আসছে তারপরও কেনও শিল্পী সংকট? জানতে চাইলে তিনি জানান, এখন যারা চলচ্চিত্রে কাজ করতে আসেন তারা মুলত নিজেকে পরিচিত করার জন্য আসেন। তাদের মধ্যে শিল্পীবোধটা থাকে না। অভিনয়ের জন্য অভিনয় শিল্পী দরকার তাহলে শিল্পী সংকট কাটবে। ‘নতুন মুখের সন্ধানে’ কার্যক্রম ঢাকডোল পিটিয়ে করা হলো কিন্তু সেই কার্যক্রম শুরু হলে এই সংকট থাকবে না বলেও তিনি জানান।

চলচ্চিত্রের অবস্থার পরিবর্তন হবে খুব শীঘ্রই। এমন দাবি করে শিল্পী চক্রবতী বলেন, সবকিছুরই একটা খারাপ সময় আসে। খারাপ সময়টা দীর্ঘস্থায়ী হয় না। তেমনি চলচ্চিত্রের বর্তমান অবস্থা। এটা সমস্যা মনে করে পিছনে পড়ে থাকলে হবে না। সম্যসার মোকাবেলা করে এগিয়ে গেলেই এর দ্রুত সমাধান হবে। ঘুরে দাঁড়াবে বাংলা চলচ্চিত্র।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ