প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৪২ মাস পর ইনিংসে পাঁচ উইকেট তাইজুলের

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ দলের স্বীকৃত একমাত্র টেস্ট বোলার হিসেবে খ্যাত তাইজুল ইসলাম। বাঁ হাতি এ স্পিনার উইকেট শিকারের পাশাপাশি দীর্ঘ সময় হাত ঘোরানোর ক্ষমতা রাখেন। বল হাতে নিয়মিত উইকেট শিকার করলেও ইনিংসে পাঁচ বা তার বেশি উইকেটের দেখা পাচ্ছিলেন না অনেকদিন থেকেই। দীর্ঘ ৪২ মাস পর সেই অপূর্ণতা দূর করলেন সিলেট টেস্টে।

টেস্ট ক্যারিয়ারে সাড়ে তিন বছর পর ইনিংসে ৫ বা ততোধিক উইকেট শিকার করলেন বাংলাদেশের বাঁ-হাতি স্পিনার তাইজুল ইসলাম। সিলেটের অভিষেক টেস্টের দ্বিতীয় দিন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১০৮ রানে ৬ উইকেট শিকার করেন তিনি। ক্যারিয়ারে চতুর্থবার ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয়বারের মত পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নিলেন তাইজুল।

২০১৪ সালে সেপ্টেম্বরে কিংস্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট অভিষেক হয় তাইজুলের। নিজের অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসেই ৪৭ ওভার বল করে ১৩৫ রানে ৫ উইকেট নেন তিনি। ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নিতে খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি তাইজুলকে। অভিষেক হওয়া বছরের অক্টোবরে ঢাকায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩৯ রানে ৮ উইকেট নেন এই বাঁ-হাতি স্পিনার। সেটিই তার ক্যারিয়ারে এখন পর্যন্ত সেরা বোলিং ফিগার। ২০১৫ সালের এপ্রিলে খুলনায় পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ১৬৩ রানে ৬ উইকেট নেন তিনি। সেটি ছিলো তার ক্যারিয়ারে তৃতীয়বারের মত পাঁচ বা ততোধিক উইকেট।

এরপর নিয়মিত উইকেট শিকার করলেও, পাঁচ বা ততোধিক ব্যাটসম্যানকে নিজের ঝুলিতে ভরতে পারছিলেন না তাইজুল। অবশেষে সাড়ে তিন বছর পর, টেস্ট ক্যারিয়ারে চতুর্থবারের মত পাঁচ বা ততোধিক উইকেট নিলেন তিনি।
জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৩৯ দশমিক ৩ ওভার বল করেন তাইজুল। তার শিকার হন ব্রায়ান চারি, ব্রেন্ডন টেইলর, রেজিস চাকাবভা, ওয়েলিংটন মাসাকাদজা, কাইল জার্ভিস ও তেন্ডাই চাতারা। প্রথম দিন তাইজুলের বোলিং পরিসংখ্যান ছিলো ২৭ ওভারে ৮৬ রানে ২ উইকেট। দ্বিতীয় দিনের প্রথম সেশনে ৪ উইকেট নেন তাইজুল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ