প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘কমিশন সভায় সিদ্ধান্ত হবে খালেদার সদস্য পদ থাকবে কি না’

সাইদ রিপন: নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানিয়েছেন, কমিশন সভায় আদালতের রায় পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত হবে বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দলের সদস্য পদে থাকতে পারবেন কি না। আগারগাঁওস্থ নির্বাচন ভবনে শনিবার রাতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে সচিব এ কথা বলেন।

গত ৩১ অক্টোবর হাইকোর্ট এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশনকে বিএনপির সংশোধিত গঠনতন্ত্র গ্রহণ না করার নির্দেশ দিয়েছেন। দলটি গঠনতন্ত্র সংশোধন করে সাত নম্বর ধারা তুলে দিয়েছেন। যেখানে বলা হয়েছিল- ১৯৭২ সালের রাষ্ট্রপতির ৮ নম্বর আদেশে দন্ডিত ব্যক্তি, দেউলিয়া, উন্মাদ, সমাজে দুর্নীতিপরায়ণ বা কুখ্যাত বলে পরিচিত ব্যক্তি জাতীয় কাউন্সিল, জাতীয় নির্বাহী কমিটি, জাতীয় স্থায়ী কমিটি বা যেকোনো পর্যায়ের যেকোনো নির্বাহী কমিটির সদস্য পদের কিংবা জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের প্রার্থী পদে অযোগ্য বলে বিবেচিত হবে। বর্তমানে খালেদা জিয়া এবং তারেক রহমান দুর্নীতির দায়ে কারাদন্ড প্রাপ্ত আসামি। তাই বিএনপির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী, তারা দলের সদস্য পদে থাকার অযোগ্য কি না এ বিষয়টিই মূলত দেখার রয়েছে নির্বাচন কমিশনের।

সচিব বলেন, আদালত একটি নির্দেশনা দিয়েছেন। আমরা সেটি কমিশনের কাছে তুলব। সেখানেই পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তফসিল পেছাতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, আমরা এখনো লিখিত দাবি দেখিনি। তাদের দাবি নিয়ে রোববার আলোচনা হবে। শনিবার বিকেলে ঐক্যফ্রন্টের পক্ষে ড. কামাল হোসেন স্বাক্ষরিত একটি চিঠিতে সংলাপ শেষে তফসিল ঘোষণার দাবি করা হয়েছে।