প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিরোধী জোটের নেতৃত্ব কি বিএনপি’র হাতছাড়া হচ্ছে?

সাজিয়া আক্তার : সরকার পতনের লক্ষ নিয়ে ১০ বছর লাগাতার রাজপথে রয়েছে বিএনপির নেতাকর্মীরা। হরতাল, অবরোধ, পিকেটিং থেকে শুরু করে মানববন্ধন, মৌনমিছিল এমনকি প্রতীকী অনশনও ছিলো আন্দোলনের অংশ। সূত্র : এটিএন নিউজ

দীর্ঘ এই ১০ বছরের আন্দোলনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগকে হটাতে পারেনি বিএনপি। উল্টো দুর্নীতির দুই মামলায় দলীয় চেয়ারপারর্সন খালেদা জিয়া জেলে গেলেন। আর ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দেশান্তরী প্রায় ১ যুগ। তবে কি অভিভাবকহীন বিএনপি জোট বেঁধে আশ্রয় খুঁজছে ড. কামাল হোসেন, মোস্তফা মহসিন মন্টু, আ স ম আবদুর রব, মাহমুদুর রহমান মান্না ও সুলতান মোহাম্মদ মনসুরের মতো সাবেক আওয়ামী লীগারদের ছায়ায়?

ঢাকা কলেজ ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সজীব বলেন, আওয়ামী লীগ থেকে যারা বেরিয়ে এসেছে অবশ্যই তারা গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের জন্য বেরিয়ে এসেছে।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আসিফুর রহমান বিপ্লব বলেন, দেশের মানুষের কল্যানের জন্য আমরা সবাই একসাথে হয়ে ঐক্যজোট করেছি। দেশের মানুষের ভোটাধিকার আদায়ের করার জন্য।

১০ বছর ধরে প্রতিপক্ষের তোপের মুখে থেকেও যারা বিএনপির রাজনীতি করে গেছেন, এখন একাদশ নির্বাচনের আগে জাতীয় ঐক্যজোটের নেতৃত্বে কাজ করতে কেমন লাগছে তাদের?

ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষকে ভালবেসে তারা এখানে এসেছে, আমরা তাদের স্বাগত জানাচ্ছি।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সঞ্জিত কুমার দেব জনি বলেন, মানুষের প্রাণের দাবি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মাধ্যমে দেশে সুষ্ঠু গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা, তার জন্যই সবাই রাজপথে অবস্থান করছে।

কবি নজরুল সরকারি কলেজের ছাত্রদলের ১ম যুগ্ম সম্পাদক জসীম উদ্দিন বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না।

তাদের এই আশাবাদ কতটা বাস্তবে পরিণত হবে তা বলে দেবে সময়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত