প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংলাপের আড়ালে কেউ নাশকতার চেষ্টা করলে ঠেকানো হবে: কাদের

জিয়াউদ্দিন রাজু : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনের প্রস্তুতির নামে লোক দেখানো সংলাপ করা হচ্ছে না। এ সংলাপের পেছনে নির্বাচন বানচালের মতো যে কোনও অপতৎপরতার বিষয়ে আমরা সতর্ক আছি। সংলাপের পাশাপাশি কেউ নাশকতার পরিকল্পনা করলে তা প্রতিহত করা হবে।

শনিবার সকালে ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে এ হুশিয়ারি দেন কাদের।

৭ নভেম্বরের পর সংলাপ হবে না জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমরা ৮ তারিখ পর্যন্ত যেতে পারছি না, কারণ সিডিউল ডিক্লেয়ার, নমিনেশন নেওয়ার বিষয় আছে। আমরা ৭ তারিখে শেষ করবো। ৪ তারিখে ১৪ দল, ৫ তারিখে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বে জাতীয় পার্টির সঙ্গে আমরা বৈঠক করবো। এরপর ইসলামী কিছু দল আছে, সিপিবির নেতৃত্বে বাম গণতান্ত্রিক জোটও সংলাপে অংশ নেবে।

সংলাপে সব দলের ঐক্যমতে পৌঁছানো প্রসঙ্গে এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, সবাই তো আর সন্তুষ্ট হবেন না। বিএনপি সংলাপে সন্তুষ্ট হবেন কী হবেন না- আমরা দল নেতার বক্তব্যেকেই প্রধান্য দিচ্ছি।

ড. কামাল হোসেনের প্রসঙ্গ টেনে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, তিনি কিন্তু বলেছেন, ভালো আলোচনা হয়েছে। কাজেই আমরা সেটা নিয়েই আপাতত থাকি। বি. চৌধুরীর নেতৃত্বে যে সংলাপ হয়েছে সবাই কিন্তু একই সুরে কথা বলেছেন।

সংলাপের দরজা সবার জন্য খোলা জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আমাদের নেতা বলেছেন, আমার দরজা-সংলাপের দরজা সবার জন্য খোলা। কাজেই আমরা কাউকে নিরাশ করবো না।

তিনি বলেন, সংলাপে অংশ নেওয়া পার্টি, সব মিলিয়ে পার্টি ৮০টার মতো হয়ে যায়। এ পর্যন্ত আমরা ৩২টি আবেদন পেয়েছি। এর মধ্যে ১৪ দল এবং জাতীয় পার্টি ছাড়া আমরা ৩১টি আবেদন পেয়েছি।

এ সময় ১৯৭৫ সালের এই দিনে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের ভেতরে জাতীয় চার নেতার হত্যাকা- নিয়ে কথা বলেন কাদের। বলেন, আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশূন্য করতেই বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জাতীয় চার নেতা ও সবশেষ একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা চালায় ষড়যন্ত্রকারীরা।

সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, মোহাম্মদ নাসিম, অ্যাডভোটেক সাহারা খাতুন, ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, রল. কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, দলের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল-আলম হানিফ, ডা. দীপু মণি, জাহাঙ্গীর কবীর নানক প্রমুখ। সম্পাদনা: মাহবুব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ