প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রসুনের দাম কেজিতে বেড়েছে ১৫ টাকা

স্মৃতি খানম:  সব ধরনের পেঁয়াজের দাম কমতির দিকে থাকলেও হঠাৎ করে বেড়ে গেছে আমদানি করা রসুনের দাম। কেজিতে ১০-১৫ টাকা বেড়ে প্রতিকেজি চায়না রসুন বিক্রি হচ্ছে ৫৫-৬০ টাকা। তবে চাল, ডাল, ভোজ্য তেল সহ অন্যান্য নিত্যপণের দাম রয়েছে স্থিতিশীল। রাজধানীতে ঘর থেকে শুর করে খাবারের হোটেল, সর্বত্রই চীন থেকে আমদানি করা মোটা আদার চাহিদা বেশি। যে কারণে সরবরাহে কিছুটা ঘাটতি দেখা দিলেই বেড়ে যায় দাম। তবে দাম নিয়ন্ত্রণে বিকল্প হিসেবে সম্প্রতি ভারত থেকে আদা আমদানি শুরু করেছেন ব্যবসায়ীরা। পাইকারি বাজারে এক সপ্তাহ আগেও প্রতিকেজি ১৫৫ থেকে ১৬০ টাকায় বিক্রি হওয়া আদার দাম কমে হয়েছে ১১০-১১৫ টাকা। চলতি সপ্তাহে কিছুটা বেড়েছে দেশি আলু ও আমদানি করা রসুনের দাম।

চলতি সপ্তাহে তেমন একটা হেরফের নেই বেশিরভাগ নিত্যপণের দামে। ব্যবসায়ীরা জানান, সব ধরণের ভোজ্য তেল ও মসলার দাম স্থিতিশীল থাকলেও মসুর ডালের দাম কেজিতে কমেছে ২-৩ টাকা। বাজারে খোলা সয়াবিন তেল প্রতিকেজি ৮২ টাকা ও চিনি পাওয়া যাচ্ছে ৪৪-৪৫ টাকায়।

বেশ কিছু দিন ধরেই পাইকারিতে মন্দাভাবের বাজারে চালের রয়েছে পর্যাপ্ত সরবরাহ। মিল পর্যায়েও নেই ঘাটতির খবর। ফলে খানিকটা স্বস্তি রয়েছে চালের দামে। বাজারে মিনিকেট মানভেদে প্রতিকেজি ৪৬-৪৯ টাকা ও মোটা চাল পাওয়া যাচ্ছে ৩৪-৩৭ টাকার মধ্যে। সূত্র : সময় টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ