প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে এ রায় দেয়া হয়েছে

জয়নাল আবেদিন ফারুক

দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে অন্যায়ভাবে সাজা দেয়া হয়েছে। আমি একজন তৃণমূল কর্মী হিসেবে বলতে চাই, সরকার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণদিত হয়ে আবারো একটি অসত্য, বানোয়াট এবং মিথ্যা মামলায় সাজা দেয়া হয়েছে। এটি একটি সম্পূর্ণ অসত্য এবং বানানো মামলা। আমাদের আইনজীবিরা প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছে যে, এটি একটি মিথ্যা মামলা এবং এই মামলায় বেগম খালেদা জিয়া বেকসুর খালাস পেতে পারেন।

তাই আমরা মনে করি, এই রায় রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণিতভাবে দেয়া হয়েছে। এজন্য আমরা এই রায় গ্রহণ করতে পারি না, এবং আমাদের আইনজীবিরা উচ্চ আদালতে যাবে।

ঐক্যফ্রন্ট মনে করে, রাজনীতিতে শেষ কথা বলে কিছু নেই। ঐক্যফ্রন্টের ব্যাপারে আওয়ামী লীগের হুঙ্কার, আওয়ামী লীগ নেতাদের হুঙ্কার এবং ঐক্যফ্রন্টকে তারা অকথ্য ভাষায় গালি-গালাজ করেছে। আমাদের নেতা ড. কামাল হোসেনকে এই বৃদ্ধ বয়সেও তাদের অনেক অশোভন আচরণ সহ্য করেছেন। এতকিছুর পরেও তারা যেহেতু সংলাপের ব্যপারে আমাদের সাথে বসেছেন, তাই আমরা মনে করি, তারা ঐক্যফ্রন্টকে গ্রহণ করে নিয়েছেন। ঐক্যফ্রন্টের যে ৭ দফা দাবি ছিলো, এটির মধ্যে প্রথম ছিলো, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি। এটি দিয়েই চিঠি পাঠানো হয়েছিলো। সে চিঠি যখন তারা গ্রহণ করেছেন, এবং আলোচনা করা হয়েছে, সে জন্য আমরা মনে করি, নির্বাচনের স্বার্থে, গণতন্ত্রের স্বার্থে তারা কার্যকরি পদক্ষেপ নিবেন। পরিচিতি: বিএপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক চিফ হুইপ/ সম্পাদনা: ফাহিম আহমাদ বিজয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ