প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আদমদীঘিতে ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় প্রসুতির মৃত্যুর অভিযোগ

আবু মুত্তালিব, আদমদীঘি (বগুড়া) : বগুড়ার আদমদীঘিতে সততা ক্লিনিকে রাখি বেগম (২০) নামের এক সিজার রোগীনির ভুল চিকিৎসায় মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় ক্লিনিক ঘেরাসহ এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্ঠি হয়েছে। থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পরিস্থিতি শান্ত করেন। এর এক বছর আগে ওই ক্লিনিকে রানীনগরের কদমগাড়ী গ্রামের জীবন নেসা নামের এক গৃহবধু ভুল চিকিৎসায় মারা যায় বলে স্থানীয়রা জানান।

জানাযায়, আদমদীঘির পশ্চিম সিংড়া গ্রামের সোহেল রানার গর্ভবতি স্ত্রী রাখি বেগমকে সন্তান প্রসব করানোর জন্য গত বৃহস্পতিবার বেলা ২টায় আদমদীঘি হাসপাতাল গেটের সামনে সততা ক্লিনিকে ভর্তি করনোর পর রাত ৮টায় নওগাঁ ইসলামি ব্যাংক কমিউনিটি হাসপাতালের চিকিৎসক ডাঃ আবু আনছার রাখি বেগমকে সিজার অপারেশনের মাধ্যমে একটি পুত্র সন্তান ভুমিষ্ঠ করান বলে ক্লিনিক ম্যানেজার মেহেদী হাসান জানান।

সিজার করানোর পর থেকেই রোগীনিকে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ চিকিৎসা করান। পরদিন গতকাল শুক্রবার দুপুরে ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় প্রসুতি রাখি বেগমের মৃত্যু হলেও বিষয়টি গোপন করে ধামাচাপার চেষ্টা করা হয়। বেলা ৪টায় বিষয়টি জানাজানি হলে তোলপাড়ের সৃষ্ঠি হয়। নিহত রাখি বেগমের স্বামী সোহেল রানা ও স্বাশুড়ি লুৎফন নেসার দাবী, ক্লিনিক কতৃপক্ষের অবহেলা ও ভুল চিকিৎসার কারনে রাখি বেগমের মৃত্যু ঘটে। ঘটনার পরপর ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ গা ঢাকা দেয়ায় তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

তবে ক্লিনিকের দায়িত্বপ্রাপ্ত তোজাম্মেল হক নামের একজন পরিচালক মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, ভুল চিকিৎসা নয় রোগীনি অসুস্থায় মারা যায়। সিজার অপারেশকারী চিকিৎসকের মোবাইল ফোন বন্ধ থাকায় তার সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। থানা ওসি তদন্ত আব্দুর রাজ্জাক প্রসুতির মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করে জানান, নিহতের পরিবার বাদী হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ রিপোর্ট লেখা সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত মামলা হয়নি তবে উত্তেজানা বিরাজ করছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ