প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পতনের মধ্যেও শেয়ারবাজারে বিও অ্যাকাউন্ট বাড়লো সোয়া লাখ

ফয়সাল মেহেদী : দীর্ঘ দিন ধরে পতনের বৃত্তেই ঘুর-পাক খাচ্ছে দেশের শেয়ারবাজার। এর মধ্যেও বাড়ছে বেনিফিশিয়ারি ওনার্স বা বিও অ্যাকাউন্ট খোলার প্রবণতা। গত তিন মাসে শেয়ার ব্যবসার নতুন অ্যাকাউন্ট বা হিসাব খোলা হয়েছে প্রায় সোয়া লাখ। যদিও এর কোনো প্রভাব নেই লেনদেনে। সেকেণ্ডারিতে সুবিধা করতে না পেরে আইপিওতে বিনিয়োগের জন্যই মূলত নতুন হিসাবগুলো খোলা হয়েছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

সেন্ট্রাল ডিপজিটরি বাংলাদেশ (সিডিবিএল) সূত্রে জানা গেছে, চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জুলাই মাসের শেষে শেয়ারবাজারে মোট বিও হিসাবের সংখ্যা ছিল ২৬ লাখ ১৩ হাজার ১৩৪টি। অক্টোবর মাসের শেষে বিও হিসাব সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ লাখ ৩৭ হাজার ৮০৪টিতে। আগস্ট থেকে অক্টোবর পর্যন্ত তিন মাসে নতুন বিও হিসাব খোলা হয়েছে ১ লাখ ২৪ হাজার ৬৭০টি। এই তিন মাসের প্রতি মাসে গড়ে নতুন বিও হিসাব বেড়েছে ৪১ হাজার ৫৫৭টি এবং প্রতিদিন খোলা হয়েছে গড়ে ১ হাজার ৩৫৫টি বিও হিসাব। এর মধ্যে শুধু অক্টোবরেই নতুন বিও হিসাব বেড়েছে ৪২ হাজার ২৯৪টি।

অর্থনীতিবিদ ও শেয়ারবাজার বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক আবু আহমেদ বলেন, অ্যাকাউন্ট সংখ্যা বাড়লেও লেনদেন বা বিনিয়োগ কিন্তু বাড়ছে না। এতে মনে হচ্ছে- সেকেণ্ডারি বাজারে সুবিধা করতে না পেরে লোকসান কমাতে আইপিওতে ঝুঁকছেন বিনিয়োগকারীরা। নামে-বেনাবে বেড়েছে বিও অ্যাকাউন্ট খোলার প্রবণতা। তবে যে পরিমাণ বিও হিসাব বেড়েছে তার প্রায় ৯০ শতাংশই আইপিওতে ব্যবহারের জন্য। বাকি ১০ শতাংশ হয়তো নিয়মিত লেনদেনের জন্য ব্যবহার হবে বলে মনে করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের এই অধ্যাপক।

সিডিবিএল’র তথ্যমতে, আগস্ট, সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর মিলে মোট তিন মাসে শেয়ারবাজারে পুরুষ বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব বেড়েছে ৮৮ হাজার ৭১৯টি এবং নারী বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব বেড়েছে ৩৫ হাজার ৫৩৩টি। এছাড়া ৪১৮টি বেড়েছে কোম্পানির বিও হিসাব। এদিকে আলোচ্য সময়ে নতুন করে স্থানীয় বা আবাসিক বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব বেড়েছে ১ লাখ ১৭ হাজার ৪৪৯টি এবং প্রবাসী বা অনাবাসিক বিও হিসাব বেড়েছে ৬ হাজার ৮০৩টি। এর মধ্যে একক বিও হিসাব সংখ্যা ৬৮ হাজার ৬২৭টি এবং যৌথ বিও হিসাব ৫৫ হাজার ৬২৫টি।

এদিকে সেপ্টেম্বর মাসের তুলনায় অক্টোবরে নতুন বিও হিসাব বেড়েছে ৪২ হাজার ২৯৪টি। এর মধ্যে পুরুষদের বিও হিসাব বেড়েছে ২৯ হাজার ৭৮৩টি এবং নারীদের বিও হিসাব বেড়েছে ১২ হাজার ৩২০টি। এছাড়া ১৯১টি বেড়েছে কোম্পানির বিও হিসাব। এ সময়ে নতুন করে স্থানীয় বিও হিসাব বেড়েছে ৩৭ হাজার ১৭৪টি এবং প্রবাসী বিও হিসাব বেড়েছে ৪ হাজার ৯২৯টি। এর মধ্যে একক বিও হিসাব সংখ্যা ২৩ হাজার ২৭৩টি এবং যৌথ বিও হিসাব ১৮ হাজার ৮৩০টি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ