প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেশিনে কাগজ দিলেই হবে ইউরো!
প্রতারণা চক্রের দুই সদস্য গ্রেফতার

সুজন কৈরী: কালো কাগজের সঙ্গে আসল ইউরো মিশিয়ে মেশিনের ভেতর রাখলে ২৪ ঘন্টার মধ্যে আসল ইউরো তৈরি হবে। এই ব্যবসায় অনেক টাকা আয় করা যাবে। এমন প্রলোভন দেখিয়ে অভিনব ফাঁদ পেতে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে বিপুল অংকের টাকা আতসাৎকারী প্রতারক চক্রের দুই সদস্যকে গ্রেফতার করেছে ডিএমপির গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ। তারা হলেন- মো. আবুল হোসেন ওরফে পংকজ শর্মা (৪২) ও এলেক্স টেনে ওরফে পেট্রিক (৪৫)। তাদের কাছ থেকে ১টি প্রিমিও ব্রান্ডের প্রাইভেটকার, ১টি ইলেক্ট্রনিক্স লকার, ১টি কাঠের বক্স ও ১২ বান্ডিল কালো কাগজ উদ্ধারের পর জব্দ করা হয়। বুধবার রাজধানী উত্তরা হাউজ বিল্ডিং এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

ডিবি সূত্রে জানা যায়, গত ৩ থেকে ৪ মাস পূর্বে মো. রুহুল আমিন ব্যবসায়ীক কাজের জন্য খিলক্ষেতের হোটেল লা মেরেডিয়ানে গেলে গ্রেফাতরকৃতদের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। পরিচয়ের সুবাদে আবুল হোসেন, এলেক্স টেনে, মাইক ও পিটার সুযোগ বুঝে রুহুল আমিনকে মুরগীর ফার্ম, গরুর খামার এবং তেলাপিয়া মাছের ফিসারীতে অনেক লাভবান হবে এবং এই মুরগী, গরু ও তেলাপিয়া মাছ বিদেশীদের দেশে (ক্যামেরুন) নিয়ে যাবে এবং এই ব্যবসায় অনেক টাকা আয় হবে বলে প্রলোভন দেখায়। এছাড়া তারা মেশিনের মাধ্যমে কালো কাগজের সঙ্গে আসল ইউরো মেশিনের ভিতর রাখলে আসল ইউরো তৈরি হবে। এই ব্যবসায়ে অনেক টাকা আয় করা যাবে বলেও প্রলোভন দেখানো হয়। গ্রেফতারকৃতরা বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের দামী গাড়ী নিয়ে বিভিন্ন তারিখে রুহুল আমিনের বাড়িতে গিয়ে ওই ব্যবসার ব্যাপারে আলোচনা করে। তারা প্রলোভন দেখিয়ে রুহুল আমিনের কাছ থেকে গত ৯জুন রাতে নগদ ১৮লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে ময়মনসিংহের ত্রিশাল, ভালুকা ও মুক্তাগাছায় কয়েকটি তেলাপিয়া মাছের খামার দেখিয়ে গত ২০ আগস্ট ৪০লাখ টাকা, ২৮ আগস্ট ৩৮লাখ টাকাসহ মোট ৯৬লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। পরে এ ঘটনায় রুহুল আমিন বাদী হয়ে প্রতারকদের বিরুদ্ধে গত ২৮অক্টোবর বাড্ডা থানায় মামলা করেন।

ডিবি জানায়, মামলাটি থানা থেকে গোয়েন্দা বিভাগে স্থানান্তর হলে বিশ্বস্ত গুপ্তচর নিয়োগ করে প্রতারকদের অবস্থান সনাক্ত করে গোয়েন্দা উত্তর বিভাগ। পরে উত্তরা হাউজ বিল্ডিং এলাকায় অভিযান চালিয়ে প্রতারক চক্রের প্রধান ২ সদস্যকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা উত্তর বিভাগের বিমান বন্দর জোনাল টিম। মামলায় অপর দুই আসামি মাইক ও পিটার পলাতক রয়েছেন। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ