প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সংলাপের আগে হতাশ হওয়া কিছু নেই: কাদের

আহমেদ জাফর: আওয়ামী লীগের সঙ্গে ঐক্যফ্রন্ট নেতারা সংলাপে বসছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দরজা করোও দরজা বন্ধ না। সংলাপের আগেই হতাশ হওয়ার কিছুই নেই ? সংলাপের টেবিলে সকল আলোচনা হবে।

তবে সংলাপ চেয়ে অসাংবিধানিক পন্থায় ক্ষমতার পালাবদল করার চেষ্টা করলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে জবাব দেবে আওয়ামী লীগ বলে মন্তব্য করেছেন আওয়াামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার (১নভেম্বর) ধানমন্ডি আওয়ামী লীগের সভাপতি রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকম-লীর নিয়মিত সভা শেষে তিনি এ কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সংলাপে কী হয় তাই দেখুন, আগেই হতাশা কেন? প্রধানমন্ত্রীর দরজা সবার জন্য খোলা। বাম গণতান্ত্রিক জোট ও ব্যারিস্টার নাজমুল হুদাও সংলাপ করতে চাইছেন। সবার সঙ্গে পর্যায়ক্রমে সংলাপ হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচনকে বানচাল করার জন্য সহিংসতা-নাশকতা সন্ত্রাসী কর্মকা- করলে জনগণ তা প্রতিহত করবে। জনগণের পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের ছাড় দেবে না। অসাংবিধানিক পন্থায় ক্ষমতার পালাবদল চেষ্টা করলে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে জবাব দেয়ার জন্য আওয়ামী লীগ প্রস্তুত আছে।

একদিকে খালেদা জিয়ার সাজা বৃদ্ধি অন্যদিকে সংলাপ ফলপ্রসূতি হবে না। বিএনপি নেতাদের এমন মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, সাজা বৃদ্ধি আইনি বিষয়, সংলাপে সাথে কোনো সম্পর্ক নাই। আপনাদের দাবি থাকলে টেবিলে প্রধানমন্ত্রীকে বলুন। সংলাপের টেবিলে আপনারা শেখ হাসিনাকে সব বিষয় বলুন। সংলাপ সরকার ডাকেনি তারাই ডেকেছেন। বিষয়টি এমন নয় বিএনপির চাপে সংলাপ ডেকেছি। আমরা কারোও চাপে সংলাপ করছি না। দেশে শান্তি বিরাজ করছে। নির্বাচনে সকল বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে ইসি।

এ আরোও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান, জাহাঙ্গীর কবির নানক,মাহবুব আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক শামীম, বাহাউদ্দিন নাছিম, নওফেল,দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আফজাল হোসেন, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও উত্তর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ