Skip to main content

বল টেম্পারিং একটি আন্তর্জাতিক সমস্যা : ল্যাঙ্গার

স্পোর্টস ডেস্ক : গত মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটারদের বল টেম্পারিং কাণ্ডে নড়েচড়ে বসে সারা বিশ্ব ক্রিকেট। উদ্বিগ্ন হয় অস্ট্রেলিয়া দলের বর্তমান প্রধান কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারও। তার বিশ্বাস, বল টেম্পারিং শুধু অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের সমস্যা নয়। বরং এটা আন্তর্জাতিক পর্যায়ের অনেক বড় একটি সমস্যা। এমন ন্যাক্কারজনক কাজের কারণে নিষেধাজ্ঞাও পেয়েছেন স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফটের মতো তিন অজি তারকা ক্রিকেটার। কিন্তু বলের বিকৃতি করে সুবিধা নেয়া কিভাবে একজন ক্রিকেটারের মাথায় আসে বোধগম্য নয় সাবেক এই অজি ক্রিকেটারের। ক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ল্যাঙ্গার বলেন, ‘আমার সৎ দৃষ্টিকোণ থেকে এটা আন্তর্জাতিক পর্যায়ের একটি সমস্যা। আমি এক সেকেন্ডের জন্যও বুঝতে পারছি না আমরা কিভাবে স্যান্ড পেপার নিয়ে মাঠে যাচ্ছি। এটা আমার কাছে বোধগম্য নয়। আমার যা মনে হয় বল টেম্পারিং এমন একটা জিনিস যা আন্তর্জাতিকভাবে ছড়িয়ে আছে।’ এই কাজের পেছনে গুরুত্বপূর্ণ একটি যুক্তি দাঁড় করিয়েছেন ল্যাঙ্গার। তার মতে উইকেট যখন বোলারদের সাহায্য করে না তখনই এই সব বাজে কাজের চিন্তা আসে। তবে এটা যে ভবিষ্যতে ভয়াবহ রূপ নিতে যাচ্ছে বুঝতে পারছেন ল্যাঙ্গার। তাই বিশ্বের সব জায়গায় মান সম্মত উইকেট তৈরির জন্য তাগিদ দিচ্ছেন অজিদের এই কোচ। ‘আমরা বিশ্ব ক্রিকেটের সব উইকেটগুলোকে ঠিকভাবে তৈরি করতে পারি যাতে বল সুইং পায়। স্পিন অথবা সুইং যেটাই হোক। ‘এটা সত্যিই অনেক ভয়াবহ। আমি এটাকে যেভাবে চিন্তা করি তা হল, আপনি একজন ছোট একজন বালক এবং আপনি আপনার ভাইয়ের সাথে পুরনো সময়ের ক্রিকেট খেলছেন। আপনি বলের এক পাশে টেপ লাগাবেন যাতে এটা সুইং করে। কারণ যদি আপনি বলে সুইং না করাতে পারেন তাহলে ভাইকে আউট করতে পারবেন না। যেটা অনেক বিরক্তিকর।’