প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভুল চিকিৎসায় কিডনি হারানো রওশন আরা মারা গেছেন

ডেস্ক রিপোর্ট: ভুল চিকিৎসায় দুই কিডনি হারানো রওশন আরা মারা গেছেন। বুধবার রাতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। এ ঘটনায় অভিযুক্তের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন স্বজনরা।

আইসিউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বুধবার মৃত্যুবরণ করেন নির্মাতা রফিক শিকদারের মা। খবর পেয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছুটে আসেন সহকর্মী ও পরিবারের সদস্যরা। এ সময় রফিক শিকদার অভিযোগ করেন চিকিৎসকের অবহেলার কারণেই তার মায়ের মৃত্যু হয়েছে।

রফিক শিকদার বলেন, হাবিবুর রহমান দুলাল, যিনি আমার মায়ের অস্ত্রোপচার করেছিলেন সেই চিকিৎসক হাবিবুর রহমান দুলাল ও তার সহযোগীদের বিরুদ্ধেই আমার অভিযোগ, আমি এ ঘটনার সুরহা চাই, আমার মায়ের হত্যার বিচার চাই।

নির্মাতা রফিক শিকদার অভিযোগ করেন, তার মায়ের কিডনিতে সমস্যা দেখা দিলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইউরোলজি বিভাগের অধ্যাপক হাবিবুর রহমান দুলালের তত্ত্বাবধানে হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে পরীক্ষা নিরীক্ষার পরে জানতে পারেন তার বাম কিডনিতে সমস্যা রয়েছে। এ অবস্থায় ডাক্তার একটি কিডনি ফেলে দিতে বলেন। অপারেশন পর রওশন আরা আরো অসুস্থ হয়ে পড়লে আবারও পরীক্ষা করে দেখা যায় তার দুটি কিডনি কেটে ফেলা হয়েছে। রফিক শিকদার অভিযোগ করেন এর পিছনে অধ্যাপক হাবিবুর রহমানের হাত রয়েছে।

রফিক বলেন, সেপ্টেম্বরের ৫ তারিখ অস্ত্রোপচারের পর বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে নেয়ার পর পরীক্ষা করে দেখতে পাই আমার মায়ের দুটি কিডনিই আর নেই।

এ ধরনের অপ্রত্যাশিত ঘটনা রোধে চিকিৎসকের বিচারের দাবি জানিয়েছেন রফিক শিকদারের সহকর্মীরা।

এই ঘটনায় দোষ স্বীকার করে আগেই চিকিৎসক হাবিবুর রহমান দুলাল নতুন করে কিডনি প্রতিস্থাপনের চুক্তি করেছিল রফিক শিকদারের পরিবারের সাথে। সূত্র: সময় টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ