প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৫ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এরশাদের জোটের সংলাপ

রাইজিংবিডি : নির্বাচন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে ৫ নভেম্বর সংলাপে বসবে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোট। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষ থেকে ওই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সংলাপের জন্য গণভবনে তাদের আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবাহন গোলাপ এবং তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে প্রধানমন্ত্রী স্বাক্ষরিত সংলাপের আমন্ত্রণপত্র জোটের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কাছে পৌঁছে দেন।

এ সময় জোটের চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেন, ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বাধীন জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপ সফল হবে না। কারণ, তারা প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগসহ যেসব দাবি তুলেছেন তা সরকারের পক্ষে মেনে নেওয়া সম্ভব নয়।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নির্বাচন বিষয়ে আমাদের সংলাপ ফলপ্রসূ হবে। জাতীয় পার্টি এখন দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দল। আমরা নির্বাচনে আসলেই নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবাহান গোলাপ বলেন, গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষায় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের সংলাপের আগ্রহকে প্রধানমন্ত্রী স্বাগত জানিয়েছেন।

তিনি বলেন নির্বাচন সুষ্ঠু করতে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপের দ্বার সব সময় উন্মুক্ত আছে।

এ সময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়া উদ্দিন বাবলু এমপি, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, এস এম ফয়সল চিশতী, মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী, সুনীল শুভ রায়, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূইয়া, পীরজাদা শফিউল্লাহ আল মুনির, ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু, আলমগীর শিকদার লোটন, যুগ্ম মহাসচিব জহিরুল আলম রুবেল, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন ভূইয়া, ফখরুল আহসান শাহাজাদা, মো. হেলাল উদ্দিন, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য সুমন আশরাফ, এম এ রাজ্জাক খান, মিল্টন মোল্লা, কাজী আবুল খায়ের, মিজানুর রহমান, মিজানুর রহমান দুলাল, অ্যাডভোকেট ফায়েকুজ্জামান ফিরোজ, মজিবুর রহমান, আনোয়ার হোসেন, আলাউদ্দিন মৃধা, সাইফুল ইসলাম, ফারুক শেঠ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমন্ত্রণে সম্মিলিত জাতীয় জোটের ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল ৫ নভেম্বর সন্ধ্যায় গণভবনে যাবে। প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেবেন জোটের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। জাপার সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, দলের মহাসচিব ও জোটের মুখপাত্র এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদারসহ শরিক দলের শীর্ষ নেতারা সংলাপে অংশ নেবেন।

নির্বাচন নিয়ে সংলাপের আগ্রহ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে চিঠি দেন সম্মিলিত জাতীয় জোটের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। বুধবার সকালে এরশাদের প্রেস অ্যান্ড পলিটিক্যাল সেক্রেটারি সুনীল শুভ রায় প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে সংলাপের চিঠি নিয়ে যান। বিকেল থেকে প্রধানমন্ত্রীর জবাবের অপেক্ষায় ছিলেন প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এরশাদসহ অন্য নেতারা। সংলাপের জন্য প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণপত্র নিয়ে আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবাহন গোলাপ এবং তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন সন্ধ্যায় বারিধারার প্রেসিডেন্ট পার্কে পৌঁছালে তাদের প্রতীক্ষার অবসান ঘটে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ