Skip to main content

কালকিনিতে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ

কালকিনিতে ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ
এইচ এম মিলন, কালকিনি (মাদারীপুর) প্রতিনিধি: মাদারীপুরের কালকিনিতে এনামুল হক নামের এক ডাক্তারের ভুল চিকিৎসায় এক নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় স্থানীয় লোকজন ও ভুক্তভোগী পরিবার ওই ডাক্তারের বিরুদ্ধে চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। আজ বুধবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এ বিষয় থানায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে। ভুক্তভোগী পরিবার সূত্রে জানাগেছে, কালকিনির পার্শ্ববর্তী গৌরনদী উপজেলার খাঞ্জাপুর এলাকার পশ্চিম সমসিন গ্রামের সাইফুল ফকিরের স্ত্রী মিনারা বেগম অসুস্থ হয়ে পড়লে ভোর ৬টার দিকে বাচ্চা প্রসবের জন্য পৌর এলাকার দক্ষিন গোপালপুর গ্রামের আলাউদ্দিন ক্লিনিকে তাকে ভর্তি করা হয়। পরে সেখানে বসে তার অপারেশন করেন ডাক্তার এনামুল হক। তার এ সিজারের সময় নবজাতকের মুখমন্ডলে প্রচন্ড আঘাত লাগে। এতে করে ওই সময়ই নবজাতকের মৃত্যু হয় বলে ভুক্তভোগী পরিবার জানান। এদিকে এ নবজাতকের মৃত্যুর ঘটনায় চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেন ভুক্তভোগী পরিবার ও স্থানীয় লোকজন। ভুক্তভোগী মিনারা বেগমের স্বামী সাইফুল ফকির ক্ষোভের সঙ্গে অভিযোগ করে বলেন, ডাক্তার এনামুল আমার স্ত্রীর সিজার করার সময় আমার বাচ্চার মুখমন্ডলে আঘাত করেন। এতে করে সে মারা যায়। আমরা ডাক্তারের বিচার চাই। এবং তার বিরুদ্ধে আমরা মামলা করব। অভিযুক্ত ডাক্তার এনামুল হক বলেন, ওই নবজাতকের জন্মগত ত্রুটি ছিল। শ্বাস কষ্টও ছিল। এ কারণে নবজাতক মারা গেছে। আলাউদ্দিন ক্লিনিকের পরিচালক মজিবর রহমান বলেন, ওই নবজাতক প্রতিবন্ধী ছিল। তাই মারা গেছে। কালকিনি থানার ওসি মোফাজ্জেল হোসেন বলেন, ভুক্তভোগী পরিবার থানায় অভিযোগ করেছেন। বিষয়টি আমরা দেখব। কালকিনি হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার রেজাউল করিম বলেন, যদি এ ঘটনা ঘটে থাকে তাহলে ডাক্তারের দুর্বলতা ছিল। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, বিষয়টির ব্যাপারে আমি দেখছি।  

অন্যান্য সংবাদ