প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির কারণে নওগাঁয় কমেছে চালের দাম

স্মৃতি খানম : নওগাঁর মোকামে চালের দাম বস্তা প্রতি দুশো থেকে আড়াইশো টাকা কমেছে। সরকারের খাদ্য বান্ধব ওএমএসসহ বিভিন্ন প্রদক্ষেপের কারণে চালের দাম কমেছে বলে মনে করছেন উপকাভোগীরা। এতে নিন্ম আয়ের মানুষ বেশ খুশি হলেও ব্যবসায়ীদের দাবি, চড়া দামে ধান কেনায় লোকসান গুনছেন তারা ।
সরকারের খাদ্য বান্ধব নানা কর্মসূচির কারণে সব রকম চালের দাম কেজি প্রতি ১০ থেকে ১২ টাকা কমেছে নওগাঁর মোকামগুলোতে। দু সপ্তাহ আগেও যে চাল ৩৫ থেকে ৪৫ টাকা কিনতে হয়েছে সে চাল এখন ২৫ থেকে ২৮ টাকায় পাচ্ছেন ক্রেতারা। গত কয়েক বছরের চেয়ে এবার সর্বনিন্ম দরে চাল কিনতে পারায় নিম্ম আয়ের মানুষ দারুণ খুশি । তবে চাল ব্যবসায়ীরা বলছেন, বেশি দামে ধান কেনায় চাল বিক্রিতে লোকসান গুণতে হচ্ছে তাদের। এ অব¯হায় চালের বাজার সহনীয় রাখতে খাদ্য বান্ধব কর্মসূচি অব্যাহত রাখার দাবি ভোক্তাদের।
নওগাঁ পৌর খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, প্রতিকেজি চাল ও থেকে ১০ টাকা কমেছে। পারিজা চিকন চাল প্রতি কেজির দাম ৪৫ থেকে কমে ৪০ টাকায়, আঠাশ ৭টাকা কমে ৪৩ টাকায়, জিরাশাইল ১০ টাকা কমে ৪৫ টাকায়, মিনিকেট ৫০ থেকে কমে ৪২ টাকাঁ, হাইব্রিড ২৫ থেকে কমে ৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, চালের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির কারণে বাজারে দাম কমেছে ।
সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজি দরে চাল ও ১৮ টাকা কেজিতে আটা দিচ্ছে খাদ্য বিভাগ । চাল ব্যবসায়ী নেতারা বলছেন, হঠাৎ চালের দাম কমায় লোকসান গুণতে হচ্ছে তাদের। পাশাপাশি তারা এলসি বন্ধের দাবি জানিয়েছেন তারা।
সরকারের খাদ্য বান্ধব কর্মসূচির আওতায় জেলায় ২শ ৩ জন ডিলারের মাধ্যমে নভেম্বর পর্যন্ত সাড়ে ৯ হাজার মেট্রিক টন চাল ও ৫শ ১০ মেট্রিক টন গম, ৩ লাখ ৯৫ হাজার ২শ ৬জন উপকারভোগী পাচ্ছেন।সূত্র: সময় টেলিভিশন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ