Skip to main content

আদালত বর্জন করে আইনজীবীদের বিক্ষোভ

অনলাইন ডেস্ক : জিয়া অরফানেজ মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সাজা বাড়িয়ে ১০ বছর সাজা দেওয়ায় পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী আদালত বর্জন কর্মসূচি পালন করছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্যরা। বুধবার সকালে বার ভবন থেকে সুপ্রিম কোর্টে প্রবেশের মুখের গ্যাংওয়ের কেঁচি গেটে (কলাপসিবল গেট) তালা লাগিয়ে বিক্ষোভ শুরু করেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। এ বিষয়ে বিএনপির আইন সম্পাদক সানাউল্লাহ মিয়া জানান, মঙ্গলবার যে গতকাল কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছিল তারই আলোকে এই প্রতিবাদ বিক্ষোভ চলছে। দুপুর পর্যন্ত এই কর্মসূচি চলবে বলেও জানান তিনি। এদিকে আইনজীবীদের একাংশের আদালত বর্জনের কর্মসূচি শুরু হলেও প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে আপিল বিভাগ যথাসময়েই তাদের বিচারিক কাজ শুরু করেছেন। তবে আদালতে আইনজীবীদের উপস্থিতি অনেক কম দেখা গেছে। মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির দক্ষিণ হলে এক সংবাদ সম্মেলনে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন এ কর্মসূচির ঘোষণা দেন। তিনি বলেন, বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ও বেআইনী রায়ের বিরুদ্ধে আগামীকাল সকাল ৯টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগের আদালত বর্জন কর্মসূচি পালন করা হবে। এ কর্মসূচিতে কোনো ধরনের বাধা দেওয়া হলে তা প্রতিহত করা হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন জয়নুল আবেদীন। প্রয়োজনে এর থেকেও কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করার কথা জানান তিনি। এর আগে, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়ার সাজা বাড়িয়ে ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দেন। নিম্ন আদালতে এই মামলায় খালেদা জিয়াকে ৫ বছরের সাজা দেওয়া হয়েছিল। সূত্র : সারাবাংলা

অন্যান্য সংবাদ