প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রত্যেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় সংগীত প্রতিযোগিতা শুরু জানুয়ারিতে

বাংলা ট্রিবিউন : ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রত্যেক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে দলগত জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগিতা। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্প্রতি নির্দেশনা জারির পর মঙ্গলবার (৩০ অক্টোবর) সরকারি তথ্য বিবরণীতে এ তথ্য জানানো হয়। এর আগে গত ৩ অক্টোবর মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ নির্দেশনা জারি করে- মহান স্বাধীনতা দিবসে (২৬ মার্চ) একযোগে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করতে হবে। ওই নির্দেশনায় জানানো হয়েছিল, দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ২০১৯ সালে জাতীয় সংগীত প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে হবে।

গত ৯ অক্টোবরের মাউশির নির্দেশনায় বলা হয়েছিল, দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ভিন্ন ভিন্ন সুরে বা বিকৃত সুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের প্রবণতা ঠেকাতে এবং শুদ্ধ সুরে জাতীয় সংগীত চর্চায় অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে এ নির্দেশনা দেওয়া হয়। এই নির্দেশনার পর সরকারি তথ্য বিবরণীতে জানানো হয়, জানুয়ারি থেকেই প্রতিযোগিতার আয়োজন করতে হবে।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের নির্দেশনায় বলা হয়েছিল, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর মাঠপর্যায়ে এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবে। সরকারি তথ্য বিবরণীতে জানানো হয়, শুদ্ধ সুরে জাতীয় সংগীত পরিবেশন এবং দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জাতীয় সংগীত চর্চাকে অনুপ্রাণিত করার লক্ষ্যে দেশব্যাপী প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে দলগত জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগিতা ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে এবং ২৬ মার্চ সারা দেশে ও বিদেশে একযোগে জাতীয় সংগীত পরিবেশন কর্মসূচি পালন করা হবে।

দেশের স্কুল, কলেজ ও মাদরাসা পর্যায়ে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আন্তঃশ্রেণি প্রতিযোগিতার পর ইউনিয়ন, উপজেলা (পৌরসভাসহ), জেলা, সিটি করপোরেশন, বিভাগীয় ও জাতীয় পর্যায়ে এ প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিটি পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ দলকে পুরস্কার দেওয়া হবে। জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগিতা জানুয়ারি থেকে মার্চ ২০১৯ সময়ে অনুষ্ঠিত হবে।

তিনটি স্তরে প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে। প্রাথমিক স্তরে স্কুল ও মাদরাসায় প্রথম শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত, মাধ্যমিক স্তরে স্কুল ও মাদরাসায় ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত এবং উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে কলেজ ও মাদরাসায় একাদশ থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। শুদ্ধভাবে জাতীয় সংগীত পরিবেশন প্রতিযোগিতায় প্রতিটি স্তরে প্রতি দলে সদস্য সংখ্যা হবে ১০ জন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ