প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জাতীয় স্বার্থে বঙ্গবন্ধু কন্যা সর্বদা ছাড় দিতে প্রস্তুত থাকেন

মোল্লা মো. আবু কাওসার : জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় স্বার্থে সবর্দা ছাড় দিতে প্রস্তুত থাকেন। জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টকে গণভবনে সংলাপের জন্য আমন্ত্রণ করে প্রধানমন্ত্রী আবারো সর্বোচ্চ গণতান্ত্রিক উদারতার প্রমাণ দিয়েছেন। মানুষ দেখতে পেলো গণতন্ত্র এবং জনগণের জন্য শেখ হাসিনা সবর্দা প্রস্তুত থাকেন, সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে পারেন। প্রধানমনস্ত্রীর এমন উদারতা প্রমাণ করে শেখ হাসিনা সবার উর্ধে, তার কোনো তুলনা চলো না। একমাত্র শেখ হাসিনার হাতেই দেশের ভবিষ্যত বিদ্যমান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দরজা সবসময় সবার জন্য খোলা থাকে। কেননা শেখ হাসিনার দরজা গণতন্ত্রের দরজা, দেশের ১৬ কোটি মানুষের দরজা, উন্নয়নের দরজা এবং মানবতার দরজা। আওয়ামী লীগ কখনোই সংঘাতে বিশ^াস করে না, সংলাপের মাধ্যমে সামনে এগিয়ে যেতে চায়। এই সংলাপের মাধ্যমে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট কী চায় দেশবাসী সেবিষয়ে পরিস্কার করে জানতে পারবে। এই জোট তাদের দাবির পক্ষে কতোটুকু যুক্তি দেখাতে পারে এবং তাদের দাবি কতোটুকু গণতান্ত্রিক এবং সাংবিধানিক সেটাও জনগণ জানতে পারবে।

দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়াকে সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়ে টেলিফোন করেছিলেন। মানুষ দেখেছিলো খালেদা জিয়া সংলাপে সাড়া না দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সাথে দুর্ব্যবহার করেছিলেন এবং নির্বাচন বর্জন করেছিলেন। নির্বাচন বর্জন করে অগণতান্ত্রিক পথে হাঁটার কারণে তাদের আজ খেসারত দিতে হচ্ছে। আশা করি, জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের সাথে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সংলাপ গণতান্ত্রিক এবং সাংবিধানিকভাবে ফলপ্রসূ হবে।

পরিচিতি : সভাপিত, স্বেচ্ছাসেবক লীগ/মতামত গ্রহণ : লিয়ন মীর/সম্পাদনা : রেআ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ