প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মওদুদের বিরুদ্ধে নীরুর মামলা

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : চলমান ইতিহাস’ বইতে আশির দশকের ছাত্রদল নেতা সানাউল হক নীরু ও গোলাম ফারুক অভির বিরুদ্ধে কটূক্তি ও মানহানিকর তথ্য প্রদানের অভিযোগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের বিরুদ্ধে শত কোটি টাকার মানহানি মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার ঢাকা মহানগর হাকিম আমিনুল হকের আদালতে মামলাটি করেন সানাউল হক নীরু। মামলাটি পুলিশকে তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে রাজধানীর ধানমন্ডি থানার পুলিশ পরিদর্শককে (তদন্ত) আগামী ২৯ নভেম্বর প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী প্রদীপ দেবনাথ বিষয়টি নিশ্চিত করেন। মামলায় বইটির প্রকাশক মহিউদ্দিন আহম্মেদ ও মুদ্রাক্ষরিক নাজমুল হককে আসামি করা হয়।

আইনজীবী প্রদীপ দেবনাথ বলেন, মওদুদের লেখা ‘চলমান ইতিহাস’ বইতে সানাউল হক নীরু ও গোলাম ফারুক অভিকে ‘জঙ্গি’ ও ‘মাস্তান’ বলে আখ্যায়িত করা হয়। ভুল ও মিথ্যা তথ্য দিয়ে জাতিকে বিভ্রান্ত করায়, একই সঙ্গে ওই তথ্যের মাধ্যমে বাদীপক্ষকে সমাজে হেয়প্রতিপন্ন করায় শত কোটি টাকার মানহানি মামলাটি করা হয়।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ও সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন আশির দশকের ছাত্রনেতা সানাউল হক নীরু। ছাত্রদলের প্রথম নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মাহবুল হক বাবলুর সহোদর তিনি। দলীয় শৃঙ্খলাবিরোধী কর্মকাণ্ডের অভিযোগে ১৯৯০ সালে দল থেকে বহিষ্কৃত হন। ২০০৮ সালে সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক ডা. এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরীর বিকল্পধারা বাংলাদেশে যোগ দিয়ে নরসিংদী-৪ (মনোহরদী-বেলাব) আসনে কুলা প্রতীক নিয়ে এমপি প্রার্থী হন।

প্রসঙ্গত, মওদুদ আহমদের ‘চলমান ইতিহাস’ বইতে ১৯৮৩ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত সময়ে দেশের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট নিয়ে আলোচনা করা হয়। বইটিতে তার ‘খণ্ডিত স্মৃতিকথা’ ও ‘খণ্ডিত বিশ্লেষণ’ প্রকাশ পায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ