প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারত-জাপান নিজস্ব মুদ্রায় লেনদেন করবে ৭৫ বিলিয়ন ডলারের সমপরিমান অর্থ

রাশিদ রিয়াজ : এশিয়ার দুই বৃহত্তম অর্থনীতির দেশের মধ্যে এটি দ্বিতীয় মুদ্রা বিনিময় চুক্তি। এর আগে বেইজিং ও টোকিওর মধ্যে ৩০ বিলিয়ন ডলারের সমপরিমাণ অর্থে দুটি দেশ নিজস্ব মুদ্রায় লেনদেন চুক্তি করে। এবার ভারত ও জাপানের মধ্যে অনুরুপ চুক্তি হল ৭৫ বিলিয়ন ডলারের। ভারতে মার্কিন ডলারের বিপরীতে রুপির অব্যাহত দরপতন রোধ, রুপির মূল্যায়ন পুনরুদ্ধার ও বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে এধরনের চুক্তি করল দুটি দেশ। চীন-মার্কিন বাণিজ্য যুদ্ধ ও তেলের দর বৃদ্ধিতে ভারতের শেয়ারবাজার থেকে এ বছর ইতিমধ্যে ৯৭ হাজার কোটি রুপির বিদেশি বিনিয়োগ প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। এরই প্রেক্ষিতে এধরনের মুদ্রা বিনিময় চুক্তি করল ভারত ও জাপান। ২০১৫ সালে দুটি দেশের মধ্যে এধরনের একটি চুক্তির চেয়ে এবারের এ চুক্তিটি ৫০ শতাংশ বড়।

ভারতের অর্থমন্ত্রী অরুন জেটলি বলেন, এধরনের চুক্তি জাপানের সঙ্গে ভারতের গভীর অর্থনৈতিক সম্পর্কের প্রতিফলন। তবে আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বড় অর্থনীতির দেশগুলোর এধরনের চুক্তির ফলে ডলার আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে যে একচেটিয়া প্রভাব বিস্তার করে আছে তা কিছুটা হলেও খর্ব হবে।

অরুন জেটলি আরো বলেন, বিদেশি মূলধনের প্রয়োজন হলে এধরনের চুক্তি কাজে লাগানো যাবে। বৈদেশিক মুদ্রার স্থিতিশীলতায় এ চুক্তি কার্যকর। এমনকি শেয়াবাজারে বিনিয়োগের জন্যে এ চুক্তি অনুকূল।

চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য যুদ্ধের আড়ালে ভারত, জাপান ও চীনের মধ্যে এধরনের মুদ্রা বিনিময় চুক্তি ছাড়াও দেশগুলো বিলিয়ন বিলিয়ন ডলারের মার্কিন ট্রেজারি বন্ড বিক্রি করেছে। জাপানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সফরের সময় এ দুটি দেশের মধ্যে মুদ্রা বিনিময় চুক্তি বিনিয়োগের জন্যে অনুকূল বলে মনে করা হচ্ছে। মোদির টোকিওর সফরের সময় ৫৭টি জাপানি কোম্পানি ভারতে এবং ১৫টি ভারতীয় কোম্পানি জাপানে বিনিয়োগের অঙ্গীকার করে। বিজনেস স্ট্যান্ডার্ড